রবিবার, ১৩ জুন ২০২১, ০৯:১৬ অপরাহ্ন

গণহত্যার দায়ে রাতকো ম্লাদিচকে আজীবন কারাদণ্ড

উত্তরা নিউজ, আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট টাইম: বুধবার, ৯ জুন, ২০২১

গণহত্যা ও মানবতাবিরোধী অপরাধের জন্য আজীবন কারাগারেই থাকতে হবে বসনিয়ার কসাই খ্যাত রাতকো ম্লাদিচকে। মঙ্গলবার জাতিসংঘের ৫ জন বিচারকের একটি বিশেষ প্যানেল ম্লাদিচের আপিল আবেদন খারিজ করে দিলে তার এ সাজা বহাল থাকে। ২০১৭ সালে তাকে আজীবন কারাদণ্ডাদেশ দেন আদালত। এরপর এ রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেন তার আইনজীবী। সেখানে আইনজীবী উল্লেখ করেন, সার্বিয়া যুদ্ধের সময়ে ম্লাদিচের অধীনস্ত পুরো বাহিনীর দায় তাকে কেন নিতে হবে? ১৯৯৫ সাল সার্বিয়া যুদ্ধে ৮ হাজারেরও বেশি মুসলিম হত্যার অভিযোগ রাতকো ম্লাদিচের বিরুদ্ধে। যে হত্যাকাণ্ডকে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ইউরোপের সবচেয়ে বড় গণহত্যা হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

আদালতে তার আপিল খারিজ হওয়ার বিষয়টিকে অভূতপূর্ব বলেছেন অনেকে। জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক প্রধান মিশেল ব্রেসলেট বলেন, বিশ্ব বিচার ব্যবস্থায় ঘটনাটি একটি উদাহরণ। যদিও ম্লাদিচের বিচারকার্যে সময় লেগেছে বেশ।

রাতকো ম্লাদিচের আজীবন কারাগারে থাকার সাজা বহাল রাখাকে ঐতিহাসিক বলেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। এক বিবৃতিতে তিনি এ যুদ্ধে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে আছেন বলেও ঘোষণা দেন।

জাতিসংঘ মহাসচিবের বিশেষ পরামর্শক এলিস ওয়াইরিমু নেদারিতু বলেন, এ বিচার ক্ষতিগ্রস্থ এবং ভয়াবহতায় বেঁচে ফেরাদের জন্য ঐতিহাসিক নিশ্চিততা সরবরাহ করবে।

ইউরোপিয়ান কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট বলেছেন, আদালতের এ রায় বিশ্ববাসীকে বেদনাদায়ক অতীতকে পিছনে ফেলে ভবিষ্যতের দিকে এগিয়ে যেতে সহায়তা করবে।

আদালতের এ রায়কে স্বাগত জানিয়েছে তুরস্ক। এ ঘটানাকে ন্যায়বিচারের প্রতিক বলেছে দেশটি।

গণহত্যার অভিযোগ ওঠার পর থেকেই পলাতক ছিলেন রাতকো ম্লাদিচ। অবশেষে ২০১১ সালে সার্বিয়া থেকে তাকে আটক করে বিচারের মুখোমুখি করা হয়।

সূত্র: দ্য গার্ডিয়ান, আল জাজিরা

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৩-২০২১
Technical Support: Uttara IT Soluation
themesba-lates1749691102