বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১, ০১:০০ পূর্বাহ্ন

অসহায় বিধবাদের সাহায্যার্থে এগিয়ে এলেন ডাঃ ফেরদৌস খন্দকার

গোলাম রাব্বি প্লাবন, দেবিদ্বার সংবাদদাতা
  • আপডেট টাইম: শুক্রবার, ১৬ জুলাই, ২০২১
অসহায় বিধবা বিপদগ্রস্ত মহিলাদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী  প্রদান করার মাধ্যমে এক অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন আমেরিকা প্রবাসী দেবিদ্বার বাকসার গ্রামের কৃতি সন্তান তথা দেবিদ্বরের গর্ব ও শেখ রাসেল ফাউন্ডেশন নিউইয়র্ক শাখার সভাপতি করোনাকালীন অসহায়দের সাহায্যর্থে এগিয়ে আসা মানবতার ফেরিওয়ালা ডাঃ ফেরদৌস খন্দকার।
দেবিদ্বার সরকারি রেয়াজ উদ্দিন মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে “পাশে আছি কোভিড-১৯ সেবা ” কন্ট্রোল রুমের প্রধান সমন্বয়ক শাহিনুর লিপি এর সভাপতিত্বে এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানের মাধ্যমে প্রধান অতিথি হিসেবে অসহায় বিধবাদের হাতে তুলে দিয়ে উদ্বোধন করেন দেবিদ্বার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জনাব রাকিব হাসান।
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ, রাজনীতিক, সমাজ সেবক ও কুমিল্লা সোনার বাংলা কলেজের অধ্যক্ষ জনাব আবু সালেক মোঃ সেলিম রেজা সৌরভ।
আরো উপস্থিত ছিলেন দেবিদ্বার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জনাব আরিফুল ইসলাম , দেবিদ্বার প্রেস ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি বর্ষিয়ান সাংবাদিক জনাব এ বি এম আতিকুর রহমান বাসার ও গন্যমাণ্য ব্যক্তিবর্গ।
উক্ত অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন ড্রিম ডায়গষ্টিকের কর্ণধার ও উক্ত কন্ট্রোল রুমের অন্যতম সদস্য জনাব কাউসার হায়দার।
বক্তারা ডাঃ ফেরদৌস খন্দকারের ভূয়সী প্রশংসা করেন। সূদুর আমেরিকা থেকেও যে মানুষের সেবা করা যায় তাঁর উৎকৃষ্ট উদাহরণ হিসেবে ডাঃ ফেরদৌস খন্দকারের নামকে সবাই স্মরণ করেন। পাশাপাশি সমাজের আরো বিত্তবানদেরকে অসহায়দের সাহায্যর্থে এগিয়ে আসারও আহ্বান জানান উপস্থিত বক্তারা। কন্ট্রোল রুমের প্রধান সমন্বয়ক ও অনুষ্ঠানের সভাপতি হিসেবে শাহিনুর লিপি বলেন আমাদের টিমগুলো ফেরদৌস খন্দকারের নির্দেশনায় চব্বিশঘণ্টা মানুষের সাহায্যে নিয়োজিত আছি ও থাকবো ইনশাআল্লাহ।
উক্ত অনুষ্ঠানের মাধ্যমে আজকে একশতজন অসহায় বিধবা এর হাতে তুলে দেয়া হয় এই খাদ্য সামগ্রী। খাদ্যসামগ্রীর মধ্যে ছিলো প্রতিজনের জন্য পঁচিশ কেজির এক বস্তা চাল, দুই কেজি ডাল, দুই কেজি চিনি, দুই কেজি আলু, দুই কেজি পেঁয়াজ, দুই লিটার সয়াবিন তৈল, এক প্যাকেট সেমাই।

আয়োজকদের মাধ্যমে জানা গেছে ফেরদৌস খন্দকারের একটাই চাওয়া করোনা মহামারীর কারনে কোনো মানুষ যেন অভুক্ত না থাকে সেই লক্ষ্যে কাজ করে যাওয়া এবং কোনো মানুষ যেন বিনা চিকিৎসায় যেন না থাকে। আর সেই জন্যই একমাত্র সরাসরি তাঁর অর্থায়নে দেবিদ্বারে একঝাঁক নিবেদিত প্রান ব্যক্তিদের দ্বারা গঠন করেন করোনা মহামারীর কারনে অসহায়দের জন্য “পাশে আছি কোভিড-১৯ সেবা কন্ট্রোল রুম। এই কন্ট্রোল রুমটি ২৪ ঘন্টা মানবতার সেবায় নিয়োজিত। অসহায় কোনো ব্যক্তি উক্ত কন্ট্রোল রুমের নাম্বারে খাদ্য সামগ্রী, ফলমুল, ঔষধপত্র সহ অক্সিজেন সিলিন্ডারের জন্য ফোন করলেই এ ব্যক্তির সাহায্যে এগিয়ে যান নিয়োজিত টিম। এই সেবা কার্যক্রম দ্রুত তরান্বিত করার জন্য সার্বক্ষণিক একটি মাইক্রোবাস সহ দুইটি টিম পর্যায়ক্রমে কাজ করে যাচ্ছে বলে জানান কন্ট্রোল রুমের সদস্য মিতা চৌধুরী। এই ধরনের নানান সাহায্য সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে বলে জানা গেছে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৩-২০২১
Technical Support: Uttara IT Soluation
themesba-lates1749691102

fethiye bayan escort yalova escort yalova escort bayan van escort van escort bayan uşak escort uşak escort bayan trabzon escort trabzon escort bayan tekirdağ escort tekirdağ escort bayan şırnak escort şırnak escort bayan sinop escort sinop escort bayan siirt escort siirt escort bayan şanlıurfa escort şanlıurfa escort bayan samsun escort samsun escort bayan sakarya escort sakarya escort bayan ordu escort ordu escort bayan niğde escort niğde escort bayan nevşehir escort nevşehir escort bayan muş escort muş escort bayan mersin escort mersin escort bayan mardin escort mardin escort bayan maraş escort maraş escort bayan kocaeli escort kocaeli escort bayan kırşehir escort kırşehir escort bayan www.escortperl.com