৯৯৯ এ ফোন পেয়ে ১৮টি গরু উদ্ধারঃ চার ডাকাত গ্রেফতার


» কামরুল হাসান রনি | ডেস্ক ইনচার্জ | | সর্বশেষ আপডেট: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২০ - ০৮:৪৬:২৯ অপরাহ্ন

৯৯৯ এর মাধ্যমে ফোন পেয়ে ডাকাতি হওয়া ১৮টি গরু জব্দ করাসহ চার ডাকাতকে গ্রেফতার করেছে নাটোর জেলা পুলিশ। এ সময় জব্দ করা হয়েছে ডাকাতি কাজে ব্যবহার করা দুটি ট্রাক। মঙ্গলবার (১১ ফেব্রুয়ারী) দুপুরে পুলিশ সুপার কার্যলয়ের সামনে এক প্রেসব্রিফিংয়ে এই তথ্য জানান পুলিশ সুপার।

পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা জানান, গত ২৮ জানুয়ারী দিনাজপুর থেকে যশোরগামী গরু বোঝাই একটি ট্রাককে নাটোর-পাবনা মহাসড়কের বড়াইগ্রামের কয়েন কবরস্থান এলাকায় অপর একটি ট্রাক দিয়ে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে ডাকাতদল। এরপর তারা দুই গরু ব্যবসায়ীকে মারপিট ও জখম করে ছোট বড় ২৪টি গরু ভর্তি ট্রাক লুট করে নিয়ে যায়। পরে ভুক্তভোগীরা ৯৯৯ এর মাধ্যমে ফোন দিয়ে বিষয়টি নাটোর জেলা পুলিশকে জানায়। তখন থেকেই বড়াইগ্রাম সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদের নেতৃত্বে বিভিন্ন জেলায় অভিযান পরিচালনা করে আন্তঃজেলা ডাকাত দলের চার সদস্যকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরে ডাকাতদের দেয়া তথ্য অনুযায়ী সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর থেকে লুট হওয়া ২৪টি গরুর মধ্যে ১৮টি গরু এবং ডাকাতি কাজে ব্যবহৃত দুটি ট্রাক জব্দ করা হয়।

গ্রেফতাররা সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর থানার পোরজনা গ্রামের নুর বক্সের ছেলে জামাল হোসেন, একই থানার নন্দলালপুর গ্রামের আফসার আলীর ছেলে হাসেম আলী ও জোতপাড়া এলাকার হানিফ শেখের ছেলে কাউছার আলী শেখ এবং নাটোরের চরতেবাড়িয়া এলাকার গফুর মন্ডলের ছেলে মোঃ মানিক। ডাকাতিতে জড়িত অন্য ডাকাতদের ধরতে অভিযান অব্যাহত আছে। প্রেসব্রিফিংয়ে বড়াইগ্রাম সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদ, এএসপি (প্রবি) ফাতেমা তুজ জোহরা, বড়াইগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দিলীপ কুমার দাস সহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।