উত্তরা নিউজ উত্তরা নিউজ
অনলাইন রিপোর্ট


‘১৭শ’ কোটি টাকা বিনিয়োগ করতে চায় কোকাকোলা






বাংলাদেশে আগামী পাঁচ বছরে ২০ কোটি ডলার অর্থাৎ প্রায় ১৭শ’ কোটি টাকা বিনিয়োগ করতে চায় কোমল পানীয় প্রস্তুতকারী বহুজাতিক প্রতিষ্ঠান কোকাকোলা। বৃহস্পতিবার (৮ আগস্ট) সচিবালয়ে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সঙ্গে এক বৈঠকে এ আগ্রহের কথা জানান কোকাকোলার প্রেসিডেন্ট এবং প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা (সিইও) ব্রায়ান স্মিথ।

ঘণ্টাব্যাপী বৈঠকে বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (বিডা) নির্বাহী চেয়ারম্যান কাজী আমিনুল ইসলামসহ কোকাকোলার আঞ্চলিক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। এ অর্থ বিনিয়োগের বিনিময়ে কর ও শুল্ক সুবিধা চান কোকাকোলার প্রেসিডেন্ট।

তবে কর সুবিধা পেতে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হওয়ার পরামর্শ দেন অর্থমন্ত্রী। এমনকি নতুন পণ্য উৎপাদন করলে কিংবা স্পেশাল ইকোনমিক জোনে বিনিয়োগ করেও নানা সুবিধা পেতে পারেন বলে জানান তিনি।

কোকাকোলার ২০ কোটি ডলার বিনিয়োগের মাধ্যমে বিশাল জনগোষ্ঠীর কর্মসংস্থানের সুযোগ হবে বলে জানান অর্থমন্ত্রী। তিনি বলেন, বাংলাদেশ ক্রমাগতভাবে অর্থনৈতিক খাতে উন্নতি সাধন করছে। চলতি অর্থবছরই আমরা ৮ দশমিক ২৫ শতাংশ থেকে ৮ দশমিক ৩০ শতাংশ জিডিপি প্রবৃদ্ধি অর্জনের প্রত্যাশা করছি, যা ২০২৪ সাল নাগাদ দাঁড়াবে ১০ শতাংশ এবং সেটা অব্যাহত থাকবে।

তিনি আরও বলেন, বিশ্বে যে কয়েকটি দেশের রফতানি আয় খুব দ্রুত বাড়ছে, তার মধ্যে বাংলাদেশ একটি। গড় হিসাবে এক দশক ধরে দেশের রফতানি আয়ে দুই অঙ্কের প্রবৃদ্ধি হচ্ছে। এ ক্ষেত্রে অগ্রসরমাণ অর্থনীতির দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান দ্বিতীয়। উপরে আছে কেবল ভিয়েতনাম।

অর্থমন্ত্রী বলেন, বিশ্ব বাণিজ্যের এ চিত্র উঠে এসেছে বিশ্ববাণিজ্য সংস্থার ‘ওয়ার্ল্ড ট্রেড স্ট্যাটিস্টিক্যাল রিভিউ-২০১৯’ শীর্ষক প্রতিবেদনে। এটি গত সপ্তাহে প্রকাশ করা হয়। সব মিলিয়ে বিশ্ববাণিজ্যে বাংলাদেশ এখন ৪২তম বড় রফতানিকারক দেশ। অন্যদিকে আমদানিতে বাংলাদেশের অবস্থান ৩০তম। সুতরাং বিনিয়োগের জন্য বাংলাদেশ অত্যন্ত সুন্দর এবং অপার সম্ভাবনার দেশ।

উত্তরা নিউজ/এস,এম,জেড