১৩ ফেব্রুয়ারি নতুন পাড়া ছাত্র সংঘের ৪র্থ ইসলামী সম্মেলন


» উত্তরা নিউজ ডেস্ক জি.এম.টি | | সর্বশেষ আপডেট: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২০ - ০৬:৩৫:৩১ অপরাহ্ন

আগামী ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০ রোজ বৃহস্পতিবার বাদ জোহর হতে বাঁশখালী পুকুরিয়া নতুন পাড়া ছাত্র সংঘ ক্লাবের উদ্যোগে চতুর্থ ইসলামী সম্মেলন পুকুরিয়া বনাপুকুর পাড়স্থ ময়দানে অনুষ্টিত হবে। এশিয়া মহাদেশের অন্যতম ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়,( জামিয়া) পটিয়ার ক্বেরাত বিভাগের সিনিয়র ক্বারী মুফতি মাওলানা আহমুদুল্লাহর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন চট্টগ্রাম ওমর গণি এম ই এস বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের সাবেক বিভাগীয় প্রধান ও বিশিষ্ট লেখক,গবেষক ও কলামিষ্ট অধ্যাপক আল্লামা ডক্টর আঃ ফঃ ম খালিদ হোসেন সাহেব।

উক্ত মাহফিলে বিশেষ বক্তা হিসেবে বয়ান করবেন জামিয়া পটিয়ার সম্মানিত সিনিয়র মুহাদ্দিস, আন্তর্জাতিক মুফাচ্ছিরে কোরআন,বিশিষ্ট লেখক ও গবেষক অাল্লামা ওবাইদুল্লাহ হামজা,চট্টগ্রাম শাহমীরপুর মাদরাসার মোহতামিম মাওলানা ক্বারী নুরুল্লাহ সহ প্রমুখ। প্রতি বছরের ন্যায় এবছরও নতুন পাড়া ছাত্র সংঘের মাহফিল সম্পর্কে জানতে চাইলে ওক্ত ক্লাবের সভাপতি, শিক্ষানুরাগী জনাব শহিদুল ইসলাম বলেন,আমরা সব সময় ছাত্র সমাজের নৈতিকতার কথা চিন্তা করি।খেলাধুলার পাশাপাশি আমরা অাত্মশুদ্ধির লক্ষ্যে এই মাহফিল করে থাকি।নতুন পাড়া ছাত্র সংঘ ক্লাব এলাকার সকল মানুষের কথা চিন্তা করে।সমাজের বিভিন্ন ছাত্র ও যুব সমাজকে মাদকাসক্তি থেকে দূরে রাখতে খেলাধুলার পাশাপাশি প্রতি বছর মাহফিল করার সিন্ধান্ত নিয়েছি।এতে করে আমাদের ক্লাবের ভাবমূর্তি উজ্জল হচ্ছে।

সমাজের ধার্মিক মানুষ আমাদের প্রতি প্রাসঙ্গিক ধারণা পোষণ করছে। নতুন পাড়া ছাত্র সংঘের বিভিন্ন সদস্যদের সাথে কথা বলে জানতে পারলাম,তাদের ক্লাব থেকে ইসলাম পরিপন্থী কোন কর্মসূচি হাতে নেয় না। তাদের প্রধান লক্ষ্য হলো সমাজের অবহেলিত ছাত্র সমাজের পাশে দাঁড়ানো।এছাড়াও এই ক্লাবের মাধ্যেমে পুকুরিয়া উন্মুক্ত লাইব্রেরি পরিচালিত হয়।মূলত ছাত্র সমাজকে অনৈতিক কর্মকান্ড থেকে বিরত রাখতে তাদের পড়ালেখার পাশাপাশি ক্রীড়াঙ্গনে ব্যস্ত রাখে। উক্ত ক্লাবের সদস্যদের মধ্যে তিন জন আলেম রয়েছেন।যারা জামিয়া জিরি ও পটিয়া থেকে দাওরায়ে হাদিস সম্পন্ন করেছেন।অরাজনৈতিক এই সংগঠনে ত্রিধারার শিক্ষিতদের অংশগ্রহণ রয়েছে।সমাজিক কুসংস্কার, মাদকদের বিস্তার থেকে সমাজকে রক্ষা করতে তাদের ভূমিকা রাখার মত সুযোগ রয়েছে। উক্ত ক্লাব যদি সকল অন্যায়,অনাচার,মাদক,জুয়াসহ সব অপরাধের বিরুদ্ধে দাঁড়ায় তাহলে পুকুরিয়া একটি শান্তিপূর্ণ ও মডেল ইউনিয়ন হিসেবে উপজেলা পর্যায়ে খ্যাতি লাভ করবে।