উত্তরা নিউজ উত্তরা নিউজ
অনলাইন রিপোর্ট


স্যানিটারি ন্যাপকিনের কাঁচামাল আমদানির ওপর থেকে ভ্যাট প্রত্যাহার






স্যানিটারি ন্যাপকিনের কাঁচামাল আমদানির ওপর থেকে আরোপিত মূল্য সংযোজন কর (ভ্যাট) ও সম্পূরক শুল্ক প্রত্যাহার করা হয়েছে। রবিবার (৩০ জুন) অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে বলে সোমবার (১ জুলাই) জানানো হয়েছে।

এই প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী এ বছর স্যানিটারি ন্যাপকিনে-প্যাডে নতুন করে কোনও ভ্যাট আরোপ করা হচ্ছে না। গত বছরের ১৫ শতাংশ ভ্যাটই বহাল থাকছে।

প্রসঙ্গত, এ বছর স্যানিটারি ন্যাপকিনের কাঁচামাল আমদানিতে ৪০ শতাংশ ভ্যাট আরোপ করা হয়। এর সঙ্গে আগের মূল্য সংযোজন কর ১৫ শতাংশ রয়েছে। প্যাড তৈরির কাঁচামালের ওপর আরও রয়েছে কাস্টমস ডিউটি, অগ্রিম আয়কর, রেগুলেটরি ডিউটি। এসব কারণে স্যানিটারি ন্যাপকিনের দাম পড়ে ১২০-১৬০ টাকা, যা সচ্ছল পরিবারের কাছে স্বাভাবিক হলেও অসচ্ছল পরিবারের কাছে বেশ কষ্টকর।

নতুন (২০১৯-২০) অর্থবছরের বাজেটে স্যানিটারি ন্যাপকিনের ওপর থেকে বাড়তি ভ্যাট প্রত্যাহারের দাবিতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শুরু হয় প্রতিবাদ। আন্দোলনকারীরা বলছেন, ভ্যাট মওকুফ করলে প্রতি প্যাকেট স্যানিটারি ন্যাপকিনের দাম ৪০-৪৫ শতাংশ কমানো সম্ভব। তারা বলছেন, এটি নারীদের অতি প্রয়োজনীয় পণ্য হলেও এটাকে বিলাসী পণ্য ধরে ‘পিংক ট্যাক্স’ আরোপ করা হয়েছে। এটাকে আমাদের সমাজে বিলাস দ্রব্য মনে করা হচ্ছে।

স্যানিটারি ন্যাপকিনের ওপর আরোপিত কর প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। সম্প্রতি নগরীর সাহেববাজার জিরো পয়েন্টে ‘নো ভ্যাট অন স্যানিটারি ন্যাপকিন’ প্রতিপাদ্যে মানববন্ধনের আয়োজন করে বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘ষষ্ঠ ইন্দ্রীয়’। মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, নারীদের ন্যাপকিন ব্যবহারের প্রয়োজনীয়তা প্রাকৃতিক। এটা কেউ ইচ্ছা করে ব্যবহার করে না, বাধ্য হয়েই সবাই ব্যবহার করে থাকে। এর দাম বেশি হওয়ায় অনেকেই ব্যবহার করেন না। তারা ন্যাপকিনের ওপর কর প্রত্যাহার করা, ভর্তুকি দিয়ে নামমাত্র মূল্যে নারীদের প্যাড দেওয়ার দাবি জানান। একইসঙ্গে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও কর্মক্ষেত্রে নারীদের জন্য উন্নত ওয়াশরুম এবং ইমার্জেন্সি প্যাড কর্নার চালুরও দাবি জানান আন্দোলনকারীরা।

এদিকে, স্যানিটারি ন্যাপকিনের ওপর থেকে ভ্যাট প্রত্যাহারের দাবিতে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (নোবিপ্রবি) মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে শিক্ষার্থীরা। সোমবার (১ জুলাই) বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে ‘নোবিপ্রবি থিয়েটার’র উদ্যোগে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে রঙিন প্ল্যাকার্ড ও নানান স্লোগানে শিক্ষার্থীরা তাদের দাবি তুলে ধরেন।
স্যানিটারি ন্যাপকিনের ওপর আরোপিত কর প্রত্যাহারের দাবিতে বুধবার (৩ জুলাই) রাজধানীর শাহবাগে মানববন্ধনের ডাক দিয়েছেন ফেসবুক অ্যাক্টিভিস্টরা।