সেই ‘নারীবাদী’কে ‘সাবেক ছাত্র ইউনিয়ন’ বলায় আইনী নোটিশ


» উত্তরা নিউজ ডেস্ক জি.এম.টি | | সর্বশেষ আপডেট: ১৯ এপ্রিল ২০২০ - ০২:৫৮:১৫ অপরাহ্ন

গৃহকর্মী নির্যাতনের ঘটনায় সম্প্রতি ফেঁসে গেছেন সোশ্যাল সাইটে ‘নারীবাদী’ হিসেবে পরিচিত সাইয়েদা সুলতানা অ্যানি। যিনি সবসময় নারী অধিকার নিয়ে বড় বড় কথা বলেন, তিনি নিজেই যে নারী নিগ্রহ করেন, তা প্রকাশিত হয়ে পড়ায় সমালোচনার ঝড় উঠেছে। প্রশ্ন উঠেছে আজকালের শহুরে নারীবাদীদের প্রকৃত চেহারা নিয়ে। সেই নারীবাদীকে নিয়ে ভিত্তিহীন মন্তব্য করায় বামনেতা বাপ্পাদিত্য বসুকে আইনী নোটিশ দিয়েছে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন। 

গত বৃহস্পতিবার রাজধানীর উত্তরায় এক গৃহপরিচারিকাকে জিনিস নষ্টের অপবাদ মারধর করেছেন সাইয়েদা সুলতানা অ্যানী নামের কথিত নারী আন্দোলন কর্মী। নির্যাতনের শিকার হওয়া ওই তরুণীর নাম পাপিয়া আক্তার মীম। গতকাল বৃহস্পতিবার নিজ ফেসবুক পোস্টে অমানবিক ঘটনার বর্ণনা দিয়েছেন ওই তরুণী। এমনকি ফেসবুক পোস্টের এক ভিডিওতে দেখা যায় এক নারী অকথ্য ভাষায় গালাগাল ও চড়াও হচ্ছেন ওই গৃহপরিচারিকার ওপর। তরুণী তার শরীরে ক্ষতের চিহ্ণও পোস্ট করেছেন ফেসবুকে।

এই ঘটনার পর বাপ্পাদিত্য বসু সোশ্যাল সাইট ফেসবুকে লিখেন, ‘ছাত্র ইউনিয়নের সাবেক নেত্রী, বুয়েটিয়ান ইঞ্জিনিয়ার, বুয়েটের একটি হলের সাবেক ভিপি, শাহবাগ আন্দোলনের একটা পর্যায়ে মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকারের অন্যতম পাহারাদার বনে যাওয়া নেত্রী, নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে অন্যতম সোচ্চারকণ্ঠ, কখনো শাহবাগের রাজপথে, কখনো টেলিভিশনের টকশোতে নারী অধিকার ইত্যাদি বিষয়ে জ্বালাময়ী বক্তৃতাদানকারী, নারী অধিকার আন্দোলনের অন্যতম মুখ কমরেড সাইয়েদা সুলতানা এ্যানী। নিজের বাসার গৃহকর্মিকে জঘন্যভাবে নির্যাতন করেছেন। তাও এই করোনাকালে।’ 

অ্যানি নামের সেই কথিত ‘নারীবাদী’ শাহবাগের গণজাগরণ মঞ্চের আন্দোলনে ছিলেন। তবে তিনি ছাত্র ইউনিয়নের কেউ ছিলেন না বলে কালের কণ্ঠকে নিশ্চিত করেছেন সংগঠনটির বর্তমান কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক অনিক রায়। যে কারণে বাপ্পাদিত্য বসুকে এ ধরনের মিথ্যা বক্তব্য প্রত্যাহার করে ক্ষমা চাওয়ার জন্য আইনী নোটিশ দেওয়া হয়েছে বলে অনিক রায় জানান। এ ব্যাপারে জানতে বাপ্পাদিত্য বসুর মোবাইল নম্বরে কয়েকবার ফোন করলেও অপর প্রান্ত থেকে সাড়া পাওয়া যায়নি।

সূত্র: কালের কণ্ঠ।