সিলেটে মাদরাসা পড়ুয়া ছাত্রীকে ধর্ষণ : বিচারের দাবিতে মানববন্ধন


» এইচ এম মাহমুদ হাসান | | সর্বশেষ আপডেট: ১০ অগাস্ট ২০২০ - ০৯:৫৭:৩৪ পূর্বাহ্ন

মাহদী হাসান

 সিলেটের গোয়াইনঘাটে দারুস সালাম  দারুল হাদীস লাফনাউট মহিলা মাদরাসার দাওরায়ে হাদীসের (সমাপনী ক্লাসের) এক ছাত্রীকে স্থানীয় কিছু লম্পট যুবকরা মিলে ধর্ষণ ও শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ধর্ষণের অভিযোগে অভিযুক্তরা হলেন – স্থানীয় হাতিম আলীর পুত্র জহির উদ্দিন (২৮), মৃত মুসলিমের পুত্র শরিফ উদ্দিন (২৯) ও মোহাম্মদের পুত্র ইকবাল হোসেন (৩০) সহ তাদের লম্পট সঙ্গীরা।

অভিযুক্তদের দ্রুত বিচারের দাবীতে ৯ আগস্ট (রবিবার) সকাল ১০টা থেকে লাফনাউট বাজারে সড়ক অবরোধ করে মানববন্ধন করে মাদরাসার আসসালাম ছাত্র সংসদের ছাত্ররা।

কারী ফয়সাল আহমেদের সভাপতিত্বে এবং মাদরাসার ছাত্র হাফিজ এহসান উল্লাহের পরিচালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন মাওলানা আইয়ুবুে রহমান, মাওলানা ফয়জুল্লাহ, মাওলানা মইন উদ্দিন, মাওলানা ইজ্জত উল্লাহ, মুহসিন আহমেদ, মামুনুর রশীদ, রহমত উল্লাহ, হাফিজ জসিম উদ্দিন, আনিসুর রহমান, বিলাল আহমদ রাসেল প্রমুখ।

মানববন্ধনে বিক্ষুব্ধ ছাত্রজনতা দাবী জানায়, অভিযুক্তদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে শাস্তির বিধান নিশ্চিত করা হোক। মানববন্ধনের শেষদিকে প্রশাসনের লোকজন এসে এর সুষ্ঠ বিচার করার আশ্বাস দেন।

জানা যায় – গত ৩ আগস্ট (সোমবার) দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে ওই মাদরাসার ছাত্রী উপজেলার আলীরগাঁও ইউনিয়নের রাউতগ্রাম থেকে কোওরবাজার (নানাবাড়ি) যাওয়ার পথে ধর্ষক জহির উদ্দিন ও তার সহায়কদের নিয়ে রাউতগ্রাম মসজিদের দক্ষিণে অবস্থিত সালামের দোকান থেকে তাকে তুলে নিয়ে যায়। সেখান থেকে প্রায় অর্ধ কিলোমিটার দূরে জহির উদ্দিন তার নিজ ঘরে আটকে রেখে তাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। বিষয়টি পরবর্তিতে জানাজানি হলে বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠে এলাকাবাসী।