সারাদেশে বিচারাধীন মামলা ৩৬ লাখ ৪০ হাজার ৬৩৯: আইনমন্ত্রী


» Md. Neamul Hasan Neaz | | সর্বশেষ আপডেট: ২০ জানুয়ারি ২০২০ - ১০:৩২:৩৪ পূর্বাহ্ন

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, সারাদেশে উচ্চ ও অধস্তন আদালত মিলে গত বছরের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বিচারাধীন মামলার সংখ্যা ৩৬ লাখ ৪০ হাজার ৬৩৯টি। তার মধ্যে দেওয়ানি মামলা ১৪ লাখ ৫৩ হাজার ১০৭টি, ফৌজদারি মামলা ২০ লাখ ৯০ হাজার ৫২৬টি এবং অন্যান্য মামলার সংখ্যা (কনটেম্পট পিটিশন/রিট/আদিমসহ) ৯৭ হাজার ৬টি।

তিনি বলেন, এদের মধ্যে উচ্চ আদালতে বিচারাধীন মামলার সংখ্যা পাঁচ লাখ ১৩ হাজার ৩৯৬টি এবং অধস্তন আদালতে বিচারাধীন মামলা ৩১ লাখ ২৭ হাজার ২৪৩টি।

রোববার (১৯ জানুয়ারি) জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি রুবিনা আক্তারের লিখিত প্রশ্নের জবাবে এ তথ্য জানান তিনি। মন্ত্রী বলেন, সারাদেশে বিচারাধীন মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির জন্য বিচারকের সংখ্যা বৃদ্ধি, নতুন আদালত সৃষ্টি ও বিচারকদের দেশে-বিদেশে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

আইনমন্ত্রী বলেন, দেশে আদালতগুলোতে সহকারী জজ/সিনিয়র সহকারী জজের অনুমোদিত মোট পদ রয়েছে ৩৬১টি। এর মধ্যে বর্তমানে চারটি পদ শূন্য। জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট/সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের অনুমোদিত পদ রয়েছে ৫৭৬টি। এর মধ্যে বর্তমানে ৪৮টি পদ শূন্য রয়েছে।

মন্ত্রী বলেন, দেশে বর্তমানে যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ হতে জেলা ও দায়রা জজ/সমপর্যায়ের আদালতের সংখ্যা ৭৬০টি। এর মধ্যে জেলা ও দায়রা জজ সমপর্যায়ের ৩৫টি অতিরিক্ত জেলা/দায়রা জজ ও সমপর্যায়ের ৪৮টি এবং যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ/সমপর্যায়ের ২৩টি পদ শূন্য রয়েছে।

আনিসুল হক আরও বলেন, ১২তম জুডিশিয়াল সার্ভিস পরীক্ষা, ২০১৮ এর মাধ্যমে সুপারিশপ্রাপ্ত ১০০ জন প্রার্থীর মধ্যে ৯৭ জন প্রার্থীকে সহকারী জজ হিসেবে শিগগিরই নিয়োগ প্রদান করা হবে। নিয়োগ প্রক্রিয়া প্রদান কার্যক্রম সম্পন্ন হলে সরকারের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের শূন্য পদ পূরণ করা সম্ভব হবে। এছাড়া যুগ্ম জেলা জজ পর্যায় পর্যন্ত কর্মকর্তাদের পদোন্নতি রাষ্ট্রপতি কর্তৃক অনুমোদিত হয়েছে।