সাপাহারে গ্রাম্য ওঁঝার দাপটে প্রাণ গেল সাপে কাটা রোগীর


» উত্তরা নিউজ I সারাবাংলা রিপোর্ট | | সর্বশেষ আপডেট: ২৮ অক্টোবর ২০২০ - ০৩:০৬:২১ অপরাহ্ন

সাপাহার (নওগাঁ) প্রতিনিধি: সাপাহারে এক গ্রাম্য মহিলা ওঁঝার দাপটের কারণে সাপে কাটা এক রোগীর মৃত্যু ঘটেছে। গত মঙ্গলবার সন্ধ্যার দিকে উপজেলার মহাডাঙ্গা গ্রামে মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটে।
রোগীর লোকজন ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে ওই দিন দুপর ১২টার দিকে উক্ত গ্রামের উজির আলীর ছেলে আব্দুল হাকিম (৩২) তার বাসায় ছোট্র দোকান ঘরে বসে কাজ করছিল। এমন সময় মাটির ঘরের দেওয়ালের এক গর্তে তার হাত পড়লে সেখানে লুকিয়ে থাকা এক বিষধর সাপ তার হাতে কামড় দেয়। তিব্র বিষক্রিয়ার যন্ত্রনায় সে যখন ছটফট করছিল সে সময় তার পরিবারের লোকজন তাকে হাসপাতালে নিতে উদ্দত হলে একই গ্রামে থাকা শাকির আলীর স্ত্রী মনোয়ারা (৪২) নামের এক মহিলা ওঁঝা তাতে বাধ সাধে এবং সে ওই সাপে কাটা রোগীকে ভাল করে দিবে বলে তার উপর ঝাড় ফোঁক চালাতে থাকে। এক সময় রোগীর হাতের বাধনও খুলে দিয়ে কয়েক দফায় ঝাঁড় ফোঁক চালায় তার উপর। এমনি পর্যায়ে রোগী কিছুটা সুস্থ্যতা বোধ করলে ওই ওঁঝা ঘোষনা দেয় যে তার শরীর থেকে সমস্ত বিষ নেমে গেছে রোগী এখন নিরাপদ। এর পরেও তারা তাকে পুনরায় হাসপাতালে নিতে চাইলে সেখানেও বাধ সাধে ওই ওঁঝা। শেষ পর্যন্ত ওঁঝার কথায় তারা চুপ থাকলে সন্ধ্যার দিকে সাপে কাটা রোগী আব্দুল হাকিম মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। সৃষ্ট ঘটনায় অনেকেই বলাবলি করছে গ্রাম্য ওঁঝার দাপটে প্রাণ গেল সাপে কাটা রোগীর।