উত্তরা নিউজ উত্তরা নিউজ
অনলাইন রিপোর্ট


সাকিবের সঙ্গে রংপুরের চুক্তি অবৈধ






কদিন আগে বেশ ঘটা করেই বিপিএলের দল বদলেছেন সাকিব আল হাসান। ওয়ানডের বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার ঢাকা ডায়নামাইটস থেকে নাম লিখিয়েছেন রংপুর রাইডার্সে।

অবশ্য ক্যাটাগরি ঠিক হওয়ার আগেই সাকিবের সঙ্গে রংপুর কীভাবে চুক্তি করল, সেই প্রশ্নও উঠেছিল। আজ বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সংবাদ সম্মেলনে জানানো হলো, বিপিএলের প্রথম চক্রের মেয়াদ শেষ হয়েছে ষষ্ঠ আসরে। কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজি এখনো নতুন করে চুক্তিই নবায়ন করেনি। ফলে সাকিবের সঙ্গে রংপুরের চুক্তির ‘বৈধতা’ও নেই।

বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সদস্য ও বোর্ড পরিচালক মাহবুব আনাম জানান, সপ্তম আসর দিয়ে শুরু হবে বিপিএলের চার বছর মেয়াদী দ্বিতীয় চক্র। ষষ্ঠ আসরে বোর্ডের সঙ্গে আগের সাত ফ্র্যাঞ্চাইজির চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়েছে। সপ্তম আসরের আগে প্রতিটি ফ্র্যাঞ্চাইজিকে নতুন করে চুক্তি নবায়ন করতে হবে।

সব দলের সঙ্গে নতুন চুক্তি হওয়ার পর টুর্নামেন্ট শুরুর দুই মাস আগে হবে প্লেয়ার ড্রাফট বা নিলাম। তালিকাভুক্ত দেশি বা বিদেশি খেলোয়াড়দের সেই নিলামে তোলা হবে। তখনই কেবল দেশি বা বিদেশি খেলোয়াড়দের দলে টানার সুযোগ পাবে দলগুলো। এর আগে কোনো দলের সঙ্গে কোনো খেলোয়াড়ের চুক্তিই আমলে নেবে না বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল।

সাকিবের দলবদল নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে মাহবুব আনাম বলেন, ‘রংপুর রাইডার্স সাকিবের সঙ্গে যে চুক্তি করেছে, সেটার সঙ্গে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল বা বিসিবির কোনো সম্পর্ক নেই। এটা আমাদের স্বীকৃতি দেওয়ারও দরকার নেই, আলোচনা করারও দরকার নেই। আপনার সঙ্গে যদি কোনো চুক্তিই না থাকে, নিয়মও বলা থাকে না, আপনি যা কিছুই করেন সেটা তো গ্রহণযোগ্যতার কোনো অবস্থান নেই।’

‘যারা কাজ করছেন তারা যদি নিজেদের অবস্থান না জানেন, সেটা তো আমাদের দেখার বিষয় না। চুক্তি যেটি করেছে তার কোনো বৈধতা নেই। যেটা বৈধ চুক্তি না, সেটাকে নিয়ে আলাপ-আলোচনা করার আমি কোনো যৌক্তিকতাই দেখি না’- যোগ করেন মাহবুব আনাম।

উত্তরা নিউজ/এস,এম,জেড