উত্তরা নিউজ উত্তরা নিউজ
অনলাইন রিপোর্ট


সময়মতো ভারতকে হারাল অস্ট্রেলিয়া






অস্ট্রেলিয়ার জন্য ছিল বাঁচা মরার লড়াই। এই ম্যাচ হারলেই দুই ওয়ানডে বাকি থাকতে সিরিজ খুইয়ে বসতো অ্যারন ফিঞ্চের দল। সময়মতোই তারা জ্বলে উঠেছে। রাঁচিতে সিরিজের তৃতীয় ওয়ানডেতে ভারতকে ৩২ রানে হারিয়ে সিরিজে ফিরেছে সফরকারিরা।

ভারতকে হারানোর মতো পুঁজি অবশ্য গড়ে দিয়েছিলেন অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটসম্যানরাই। আলাদা করে বলতে হয় দুই ওপেনার অ্যারন ফিঞ্চ আর উসমান খাজার কথা। তাদের ১৯৩ রানের উদ্বোধনী জুটিতে ভর করে ৫ উইকেটে ৩১৩ রানের বড় সংগ্রহ পায় অস্ট্রেলিয়া।

ফিঞ্চ মাত্র ৭ রানের জন্য সেঞ্চুরি পাননি। ৯৯ বলে ১০ বাউন্ডারি আর ৩ ছক্কায় ৯৩ রান করে কুলদ্বীপ যাদবের বলে এলবিডব্লিউ হন অজি অধিনায়ক।

তবে খাজা ভুল করেননি। দেখেশুনে খেলে ক্যারিয়ারের প্রথম ওয়ানডে সেঞ্চুরিটা তুলে নেন বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান। ১১৩ বলে ১১ চার আর ১ ছক্কায় তিনি করেন ১০৪ রান।

এছাড়া তিন নাম্বারে নেমে ৩১ বলে ৩টি করে চার ছক্কায় ৪৭ রানের ঝড় তুলেছিলেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। আর শেষের দিকে মার্কাস স্টয়নিস আর অ্যালেক্স কারের ৫০ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটিতে তিনশো পেরোয় অস্ট্রেলিয়া। স্টয়নিস ২৬ বলে ৩১ আর কারে ১৭ বলে ২১ রানে অপরাজিত থাকেন।

ভারতের কুলদ্বীপ যাদব ৩ উইকেট নিলেও ১০ ওভারে খরচ করেন ৬৪ রান।

৩১৪ রানের বড় লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ২৭ রানের মধ্যে ৩ উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে ভারত। তবে বরাবরের মতো বিরাট কোহলি দলকে বলতে গেলে একাই অনেকদূর টেনে নিয়েছেন। ভারতীয় অধিনায়ক টানা দ্বিতীয় ম্যাচে আর ক্যারিয়ারের ৪১তম ওয়ানডে সেঞ্চুরি তুলে নিলেও অবশ্য শেষ হাসি হাসতে পারেননি।

৯৫ বলে ১৬ বাউন্ডারি আর ১ ছক্কায় ১২৩ করে অ্যাডাম জাম্পার বলে বোল্ড হন কোহলি। মহেন্দ্র সিং ধোনি (২৬), কেদর যাদব (২৬), বিজয় শঙ্কর (৩২), রবীন্দ্র জাদেজারা (২৪) রান পেলেও সেটা দলের জন্য যথেষ্ট ছিল না। ইনিংসের ১০ বল বাকি থাকতে ভারত অলআউট হয়েছে ২৮১ রানে।

অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে তিনটি করে উইকেট নিয়েছেন প্যাট কামিন্স, ঝি রিচার্ডসন আর অ্যাডাম জাম্পা।