সত্যিকারের রাজনৈতিক নেতাকর্মীরা লোভের বশবর্তী হয়ে রাজনীতিতে সম্পৃক্ত হন না- কাদের


» এইচ এম মাহমুদ হাসান | | সর্বশেষ আপডেট: ১২ অগাস্ট ২০২০ - ১১:১৭:৫৭ পূর্বাহ্ন

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সত্যিকারের রাজনৈতিক নেতাকর্মীরা লোভের বশবর্তী হয়ে রাজনীতিতে সম্পৃক্ত হন না। কোনো মহান লক্ষ্য-উদ্দেশ্য, আদর্শ, চেতনা ও মূল্যবোধকে সামনে রেখে রাজনীতিতে আসেন।

মঙ্গলবার (১১ আগস্ট) রাজধানীর ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্সে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ আয়োজিত ‘স্বেচ্ছাশ্রম বাংলাদেশ : বঙ্গবন্ধুর চিন্তা-ভাবনা’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের তার সরকারি বাসভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে সংযুক্ত হন। জাতীয় শোক দিবসের কর্মসূচির অংশ হিসেবে এ সভার আয়োজন করে স্বেচ্ছাসেবক লীগ।

তিনি বলেন, রাজনীতি মহান ব্রত, এটা কোনো পেশা নয়। সাধারণ জনগণ নিষ্ক্রিয় থাকলেও তাদের স্বার্থ রক্ষায় রাজনৈতিক নেতাকর্মীদের সক্রিয় থাকতে হয়। রাজনৈতিক নেতাকর্মীরা লোভের চোরাবালিতে নিমজ্জিত হলে জনগণের স্বপ্ন ছিনতাই হয়ে যায়।

তিনি বলেন, রাজনৈতিক নেতাকর্মীরা হলো জনগণের স্বার্থ রক্ষায় অতন্দ্র প্রহরী। রাজনীতির শেষ কথা হলো জনকল্যাণ।

ওবায়দুল কাদের বলেন, যারা বলে রাজনীতিতে শেষ কথা বলতে কিছু নেই। তারা জনকল্যাণের মূলমন্ত্র থেকে সরে গিয়ে লুটপাটের সংস্কৃতির বিস্তার ঘটায়। রাজনীতিকে নিজেদের স্বার্থসিদ্ধির হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করে।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু ছোটবেলা থেকেই অন্যায় দেখলে কোনো চিন্তা না করে তার প্রতিবাদ করতেন। এটা ছিল তার সহজাত প্রবৃত্তি। প্রতিবাদের সহজাত এ প্রবৃত্তি থেকে তার রাজনীতিতে অংশগ্রহণ শুরু হয়।

করোনা ও বন্যাদুর্গত এলাকার মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকর্মীদের প্রতি ধন্যবাদ ও অভিনন্দন জানান তিনি।

স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নির্মল রঞ্জন গুহের সভাপতিত্বে সভায় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম বক্তব্য রাখেন।

মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল। সভা পরিচালনা করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আফজালুর রহমান।

সভায় আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা গাজী মেজবাউল হোসেন সাচ্চু, ম. আব্দুর রাজ্জাক, আব্দুল আলিম ও এ কে এম মনোয়ারুল ইসলাম বিপুল উপস্থিত ছিলেন।