উত্তরা নিউজ I সারাবাংলা রিপোর্ট উত্তরা নিউজ I সারাবাংলা রিপোর্ট


 লালমনিরহাটে ৪ মাস ধরে বিদ্যালয়ে আসছেন না প্রধান শিক্ষক

ঈদে বেতন হয়নি পুজাতেও অনিশ্চিত!




মোঃ লিখন হোসাইন: বিনা অনুমতিতে প্রায় ৪ মাস ধরে বিদ্যালয়ে অনুপস্থিত রয়েছেন লালমনিরহাটের কালীগঞ্জের খান্ডোরচড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল লতিফ। এতে গত ঈদুল আযহায় যেমন বেতন বোনাস প্রাপ্তি সম্ভব হয়নি তেমনি আসন্ন পুজাতেও বেতন প্রাপ্তিতে শঙ্কা করছেন বিদ্যালয়টির স্টাফ কর্মচারীরা। ব্যাহত হচ্ছে স্বাভাবিক কার্যক্রমও এবং উঠে এসেছে নানা অনিয়মও। বিদ্যালয়টি পরিদর্শনপূর্বক এসব বিষয়ে অবগত করে কালীগঞ্জের মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসকে চিঠি দিয়েছেন গোড়ল ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মাহমুদুল ইসলাম।

১৮ আগস্টের ওই চিঠিতে বলা হয় কোনো শিক্ষককে দায়িত্বভার অর্পন না করেই চলতি বছরের ১৭ এপ্রিল থেকে অনোনুমোদিতভাবে বিদ্যালয়ে অনুপস্থিত রয়েছেন প্রধান শিক্ষক আব্দুল লতিফ। নিয়মিত ম্যানেজিং কমিটি গঠনে প্রধান শিক্ষকের পছন্দমতো অতি গোপনে করা কমিটি বিষয়ে অভিভাবকরা জিজ্ঞেস করলে কোনোকিছু না বলেই বিদ্যালয় ত্যাগ করে অদ্যাবধি বিদ্যালয়ে অনুপস্থিত রয়েছেন এবং অফিস সহকারীর মাধ্যমে বেতন ভাতাদির কাগজপত্র বাড়ীতে নিয়ে সই স্বাক্ষর করে  প্রধান শিক্ষক বেতন ভাতাদি উত্তোলন করছেন স্টাফ কর্মচারীরা এমনটা জানিয়েছেন বলেও  চিঠিটিতে জানানো হয়েছে। একই চিঠিতে প্রধান শিক্ষকের ভারত যাওয়া,স্বামী থাকার পরও কমিটিতে বিধবা মহিলা এবং শিক্ষার্থীহীন অভিভাবক রাখার কথা উল্লেখসহ প্রধান শিক্ষকের কর্মকান্ডে  বিরক্ত হয়ে ৩ শিক্ষক প্রতিনিধি ও ২ জন অভিভাবক সদস্যের ইস্তফাদানের কথা বলা হয়েছে।

এসব বিষয়ে কালীগঞ্জের সহকারী মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার  আফরোজা বেগমের সাথে কথা হলে তিনি কমিটি জটিলতার  অবসান হওয়া জরুরী বলে মন্তব্য করেন এবং প্রধান শিক্ষকের দীর্ঘদিনের অনুপস্থিতির বিষয়ে সত্যতা নিশ্চিত করেন উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার মো.জাকির হোসেন। এ বিষয়ে ওই প্রধান শিক্ষকের সাথে যোগাযোগের চেস্টা করেও তাঁকে না পাওয়ায় তাঁর মন্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি। এদিকে প্রধান শিক্ষকের অনুপস্থিতি, গোপনে নিয়মিত কমিটি গঠন, ভারত গমনাগমনসহ বিদ্যালয় কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে জানিয়ে গত ৬ আগস্ট উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর অন্য একটি আবেদন পত্র দিয়েছে বিদ্যালয়ে কর্মরত শিক্ষকরা এবং এর আগে বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ প্রদান করেন অভিভাবকরাও ।