লাখাইয়ে বেশী দামে লবন বিক্রির দায়ে ৮ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা


» উত্তরা নিউজ | অনলাইন রিপোর্ট | সর্বশেষ আপডেট: ২০ নভেম্বর ২০১৯ - ০১:০৪:২৩ অপরাহ্ন

মনর উদ্দিন মনির:  গতকাল ১৯ই নভেম্বর (মঙ্গলবার) সকাল ১০টা অসাধু মুনাফালোভী ব্যবসায়ীর সৃষ্ট গুজবকে প্রতিহত ও সাধারণ জনগণকে সচেতন করতে তাৎক্ষনিক লাখাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোসাঃ শাহিনা আক্তারের নেতৃত্বে সহকারী কমিশনার (ভূমি) সঞ্জিতা কর্মকার ও লাখাই থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ সাইদুল ইসলাম এর সহযোগীতায় বুল্লা বাজার, তেঘরিয়া বাজার, বামৈ বাজার, কালাউক বাজার, মুড়াকরি বাজারসহ উপজেলার বিভিন্ন বাজারে লবনের নির্ধারিত মূল্যের অতিরিক্ত মূল্যে লবণ বিক্রির দায়ে ৮ টি মুনাফালোভী অসাধু ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ ২০০৯ আইনে মোট ৩৬ হাজার টাকা অর্থদন্ড জরিমানা করেন ভ্রাম্যমান আদালত।

এসময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহীনা আক্তার বলেন, লবনের দাম বেড়ে যাবে এই গুজবে আপনার কান দিবেন না এবং আতংকিত হবেন না লবনের দাম স্বাভিক রয়েছে, কারন সারা বাংলাদেশে ভোজ্য লবনের চাহিদা প্রতি মাসে ১লক্ষ মেট্রিকটন। অন্যদিকে লবন মজুদ আছে ৬লক্ষ মেট্রিকটন। সে হিসেবে লবনের কোনো ঘাটতি নাই। শুধু লবন নয়, যে কোন ধরনের পণ্যের নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে অতিরিক্ত মূল্যে বিক্র হলে উপজেলা প্রশাসনকে জানাবেন। আমরা তাৎক্ষণিক ভাবে ব্যবস্থা গ্রহন করবো।

এছাড়াও উপজেলার বিভিন্ন বাজার ও এলাকায মাইকিং করে জনসচেতনতা অবলম্বনকরা হচ্ছে এবং লাখাইয়ে প্রতিটি বাজারে মনিটরিং কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে জানান।

অভিযুক্ত দোকান মালিকগণ জানান, তারা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন সম্পর্কে সম্যক ধারনা নাই এজন্য আমাদের জরিমানর টাকা গুনতে হচ্ছে , তবে আমরা প্রশাসনের সহযোগীতা নিয়ম কানুন যেনে মনে চলব।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনাকারী সঞ্চিতা কর্মকার বলেন ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ সকলকে মেনে চলতে হবে এবং এ বিষয়ে সচেতনতা তৈরি করতে হবে।