উত্তরা নিউজ উত্তরা নিউজ
অনলাইন রিপোর্ট


‘রুমিন ফারহানার প্লট আবেদন প্রত্যাহার’






তথ্য গোপন করে রাজধানীর পূর্বাচলে ১০ কাঠার প্লট বরাদ্দ চেয়ে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ে সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য বিএনপির সহ-আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা যে আবেদন করেছিলেন তা প্রত্যাহারের যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এতে দলটির বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা স্বস্তি প্রকাশ করেছেন।

সদ্যবিলুপ্ত জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় নেতা এস এম মোশাররফ হোসেন মুশু বলেন, ‘সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা প্লট আবেদনের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের মাধ্যমে নেতাকর্মীদের প্রতি সম্মান দেখিয়েছেন এ কারণে আমরা তাকে সাধুবাদ জানাই। তবে তিনি প্লট চেয়ে আবেদন করে নেতাকর্মীদের মনে যে ক্ষত তৈরি করেছেন তা সুদূরপ্রসারী।’

তিনি আরও বলেন, ‘রুমিন ফারহানার প্লট আবেদন প্রত্যাহারের মাধ্যমে প্রমাণিত হলো- প্লট চেয়ে তিনি যে আবেদন করেছিলেন তা অনৈতিক ছিল এবং সরকার যে তার আবেদন প্রকাশ করেছে সেটার প্রতিও ধিক্কার জানানো হলো।’

বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইং সদস্য শায়রুল কবীর খান বলেন, ‘রুমিন ফারহানা তৃণমূল নেতাকর্মীদের প্রতি সম্মান জানিয়ে যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বিএনপির একজন কর্মী হিসেবে এটাকে আমি সাধুবাদ জানাই।’

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিএনপির একজন সাংগঠনিক সম্পাদক বলেন, ‘রুমিন তার ভুল বুঝতে পেরেছেন। তিনি প্লটের আবেদন প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এটা সমর্থনযোগ্য। আশা করি ভবিষ্যতে নেতাকর্মীদের সেন্টিমেন্টের বিরুদ্ধে কখনও তিনি যাবেন না। আরও ভালো হতো যদি তিনি এখন নেতাকর্মীদের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেন।’

এদিকে বিষয়টি নিয়ে সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার সাবেক সহকারী প্রেস সচিব মোহাম্মাদ মুশফিকুল ফজল আনসারি তার ফেসবুক পোস্টে লিখেছেন, ‘ধন্যবাদ রুমিন ফারহানা। সামলে রেখো নিজেকে, তুচ্ছ করো নজরানা।’