রিমান্ড শেষে দুই গডফাদার এখন কারাগারে


» উত্তরা নিউজ | অনলাইন রিপোর্ট | সর্বশেষ আপডেট: ০৯ নভেম্বর ২০১৯ - ০৯:৪৪:১৩ পূর্বাহ্ন

দুর্নীতির মামলায় যুবলীগ নেতা এস এম গোলাম কিবরিয়া (জি কে) শামীম ও খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়াকে রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত।

বৃহস্পতিবার বিকেলে আদালতে হাজির করে তাদের কারাগারে পাঠানোর আবেদন করেন দুদকের তদন্ত কর্মকর্তা। অপরদিকে আসামিপক্ষ জামিন আবেদন করে। পরে জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে ঢাকার সিনিয়র স্পেশাল জজ আদালতের বিচারক কেএম ইমরুল কায়েশ তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এর আগে গত ২৩ অক্টোবর এ দুই আসামির ১০ দিন করে রিমান্ড আবেদন করা হয়। শামীমের রিমান্ড আবেদন করেন দুদকের উপ-পরিচালক মো. সালাউদ্দিন এবং খালেদের রিমান্ড আবেদন করেন দুদকের উপ-পরিচালক জাহাঙ্গীর আলম। পরে ঢাকার সিনিয়র স্পেশাল জজ আদালতের ভারপ্রাপ্ত বিচারক মো. আল মামুন তাদের ৭ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

দুদকের পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেনর নেতৃত্বে একটি টিম বৃহস্পতিবার শামীম ও খালেদকে জিজ্ঞাসাবাদ করে। এরপর তাদের আদালতে পাঠানো হয়।

গত ২১ অক্টোবর জ্ঞাত আয় বহির্ভুত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে জি কে শামীম ও খালেদ ভুঁইয়ার বিরুদ্ধে পৃথক মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। দুদকের প্রধান কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মো. সালাউদ্দিন বাদী হয়ে জি কে শামীম ও তার মায়ের বিরুদ্ধে এ মামলা করেন। প্রায় ২৯৭ কোটি ৯ লাখ টাকা জ্ঞাত আয় বহির্ভুত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে এসএম গোলাম কিবরিয়া শামীম ও তার মা আয়েশা আক্তারের বিরুদ্ধে এ মামলা হয়।

এছাড়া দুদকের প্রধান কার্যালয়ের উপ-পরিচালক জাহাঙ্গীর আলম বাদী হয়ে খালেদ ভুঁইয়ার বিরুদ্ধে অপর মামলাটি করেন। এই মামলায় খালেদের বিরুদ্ধে ৫ কোটি ৫৮ লাখ ১৫ হাজার টাকা জ্ঞাত আয় বহির্ভুত সম্পদ থাকার অভিযোগ আনা হয়।