উত্তরা নিউজ উত্তরা নিউজ
অনলাইন রিপোর্ট


রামগঞ্জে অপরিকল্পিত মাছ চাষ করায় সড়ক ভেঙ্গে জনদূর্ভোগ






লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে অপরিকল্পিতভাবে মাছ চাষ করায় রাস্তা ভেঙ্গে সড়ক যোগাযোগ বিচ্চিন্ন হয়ে পড়েছে। এতে চরম দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে এ এলাকার হাজার হাজার জনগোষ্ঠীকে। রাস্তা ভাঙ্গার কারনে স্কুল কলেজ মাদ্রাসায় যেতে পারছেনা শিক্ষার্থীরা। এতে শিক্ষায় পিছিয়ে পড়ার আশঙ্খা রয়েছে এ অঞ্চলের শিশুদের।
 
গতকাল ৩০ জুলাই মঙ্গলবার সরজমিন ঘুরে দেখা যায়, উপজেলা উত্তর আশাকোটা গ্রামের হাজার হাজার জনগোষ্ঠীর চলাচলের একমাত্র সড়ক এটি। গ্রামের প্রভাবশালী মোস্তফা মিয়া ঐ সড়ক ঘেষে থাকা সরকারী খাস জমি সহ একমাত্র কৃষি জমিতে অপরিকল্পিতভাবে মিশ্র জাতের মাছ চাষ করছে। মিশ্রজাতের মাছ চাষ করায় ও বিভিন্ন রাসায়নিক প্রয়োগ করায় রাস্তার নিচের মাটি সরে গিয়ে ভাঙ্গনের সৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছেন এলাকাবাসী।
 
ভূক্তভোগী কাশেম, হান্নান, শুক্কুর, বিল্লাল সহ শতাধিক গ্রামবাসী জানায়, মোস্তফা মিয়া বিডিআর এর অবসরপ্রাপ্ত সদস্য হওয়ায় গ্রামের প্রভাব খাটিয়ে যাচ্ছে কয়েকবছর ধরে। তার অন্যায়ের বিরুদ্ধের প্রতিবাদ করতে গেলে বিভিন্ন হুমকী ধমকী দিয়ে ভয়ভীতি দেখায়। তার ভয়ে কেউ কথা বলতে সাহস পায় না।
 
অভিযুক্ত মোস্তফা মিয়া বলেন, আমি আশারকোটা নুরানী মাদ্রাসা থেকে লীজ নিয়ে এখানে কয়েকবছর ধরে বিভিন্ন প্রজাতির মাছ চাষ করে আসছি। গ্রামবাসীর অনাকাঙ্খিত যে ক্ষতি হয়েছে তা এলাকাবাসীর সাথে আলাপ আলোচনা করে সমাধান করবো।
 
স্থানীয় ইউপি সদস্য নুরুল আমিন জানায়, গত ২০১৭-১৮ অর্থবছরে সরকারের গ্রামীন অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় ৪০ দিনের কর্মসূচীর মাধ্যমে এ রাস্তাটি মেরামত করেছি। কিন্তু অপরিকল্পিতভাবে মাছ চাষ করার কারনে এখন রাস্তাটি বিলীন হওয়ার পথে।
 
এ ব্যাপারে জানতে নোয়াগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ হোসেন রানার মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলেও তাকে পাওয়া যায়নি।