উত্তরা নিউজ উত্তরা নিউজ
অনলাইন রিপোর্ট


রাজধানীতে বাহারি কিশোর গ্যাং






‘চান-যাদু (জমজ ভাই)’, ডেভিল কিং ফুল পার্টি’, ‘ভলিয়ম টু’ এবং ‘ভান্ডারি গ্রুপ’—রাজধানীর মুগদা ও আশপাশের এলাকায় এমন বাহারি নামে গ্রুপ খুলে দাপিয়ে বেড়িয়েছে কিশোর অপরাধীরা। ছিনতাই, চাঁদাবাজি থেকে শুরু করে মাদক ব্যবসা আর সেবনে তারা সিদ্ধহস্ত। পথেঘাটে নারীদের উত্ত্যক্ত করা ছিল তাদের নিয়মিত অপকর্ম। তবে শেষ রক্ষা হয়নি এই কিশোর গ্যাংয়ের। গত সোমবার সন্ধ্যা থেকে গভীর রাত পর্যন্ত র‌্যাব ঐ এলাকায় অভিযান চালিয়ে এসব অপরাধী গ্রুপের ২৩ সদস্যকে আটক করেছে।

র‌্যাব জানিয়েছে, কিশোর গ্যাংয়ের আটককৃত সদস্যরা অপরাধ করায় র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাদের প্রত্যেককে তিন মাস করে কারাদণ্ড দেন। এরমধ্যে তিন জনের শিশু বয়স হওয়ায় গাজীপুর কিশোর সংশোধনাগারে এবং অপর ২০ জনকে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়। তাদের কাছ থেকে ২৫ পিস ইয়াবা এবং দেড় কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়েছে। ভ্রাম্যমাণ আদালতের নেতৃত্ব দেন র্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আক্তারুজ্জামান।

ঐ অভিযানে থাকা র‌্যাব-৩ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বীনা রানী দাস জানান, চান-যাদু গ্রুপের সদস্যদের বয়স ১০ থেকে ১৮ বছরের মধ্যে। এরা মূলত বস্তির স্কুল থেকে ঝরে পড়া। এলাকায় আধিপত্য বিস্তার, মাদক সেবনসহ নানা অপরাধে জড়িত ছিল গ্রুপটি। অন্যদিকে ডেভিল কিং ফুল পার্টি গ্রুপের সদস্যদের বয়স ১৮ থেকে ২৩ বছরের মধ্যে। এর সদস্যরা আধিপত্য বিস্তারের জন্য এলাকায় শো-ডাউন, মেয়েদের ইভটিজিং ও মাদক সেবনে জড়িত। ভলিয়ম টু ও ভান্ডারি গ্রুপের সদস্যরা মাদক সেবনের পাশাপাশি মাদক বেচাকেনাতেও জড়িত।

র‌্যাব-৩ এর অপারেশন অফিসার এ বি এম ফাইজুল ইসলাম বলেন, বিভিন্ন এলাকায় কিশোর গ্যাংয়ের বিরুদ্ধে তাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে। এই গ্রুপগুলোর পলাতক আর কোনো সদস্য রয়েছে কি না—তাও নজরদারি করা হচ্ছে।

উত্তরা নিউজ/এস,এম,জেড