মুসলমানরা সন্ত্রাসী নয়, সন্ত্রাসের শিকার: আমেরিকায় বাংলাদেশী মুফতী

উত্তরা নিউজ টোয়েন্টিফর ডটকম। অনলাইন: দক্ষিণ চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার চুনতীর কৃতি সন্তান মুফতী আনসারুল করিম গত ২৭ মার্চ আমেরিকার এ্যসেম্বিলি হাউস ও সিনেট অধিবেশনে বাংলাদেশ-সহ সারাবিশ্বে মুসলমানদের উপর জুলুম ও নির্যাতনের বর্ণনা তুলে ধরে পর পর দুই বার বক্তব্য দিয়ে আলোড়ন সৃষ্টি করেছেন। মার্কিন ইতিহাসে এই প্রথম একই দিনে দুইবার মুসলমানদের কোন ধর্মীয় নেতাকে এ্যসেম্বিলি ও সিনেটে বক্তব্য দেওয়ার সুযোগ দেওয়া হয়।
প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশের লাল সবুজের পতাকা গলায় জড়িয়ে মুফতী আনসারুল করিম দীর্ঘ সময় বক্তৃতা প্রধান করেন। এসময় স্পিকার পাশে দাড়িয়ে মনোযোগ সহকারে তার বক্তব্য শুনেন।

মুফতী আনসারুল করিম তাঁর বক্তব্যে বাংলাদেশ-সহ সারাবিশ্বে মুসলমানদের উপর জুলুম ও নির্যাতনের বর্ণনা তুলে ধরেন বলেন, মুসলমান কোন সন্ত্রাসী জাতি বা গোষ্ঠী নয়। তারা সন্ত্রাসের শিকার। এসময় তিনি কোরআন হাদিসের দৃষ্টিতে এর বিশদ বর্ণনা তুলে ধরেন।

উল্লেখ্য, মুফতী আনসারুল করিম ১৯৭৮ সালে চুনতীর এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্ম গ্রহণ করেন। তার পিতা মিয়া মুহাম্মাদ হাছান ও মাতা আমেনা বেগম। তিনি প্রথম শ্রেণী থেকে কামিল পর্যন্ত চুনতি হাকিমিয়া আলিয়া মাদরাসায় পড়ালেখা করেন।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মাস্টার্স পাশ করে শিক্ষা উপবৃত্তি নিয়ে মিশর জামেয়া আল আজাহার থেকে গ্রেজুয়েশন ও পরে পোষ্ট গ্রেজুয়েশন সম্পন্ন করেন। এর পর সাউথ আফ্রিকার ডারবান বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এম ফিল ডিগ্রি লাভ করেন। বর্তমানে তিনি আমেরিকার হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে পিএইচডি গবেষণায় আছেন। এছাড়া তিনি বর্তমানে আমেরিকা ভিওিক ইসলামীক সংগঠন ইসলামিক এফায়ার্স আহলে বায়াতের প্রধান হিসাবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *