মার্কিন কনস্যুলেট কর্মীরা চীন ছাড়ছেন


» এইচ এম মাহমুদ হাসান | | সর্বশেষ আপডেট: ২৬ জুলাই ২০২০ - ০৮:৪৩:০৭ অপরাহ্ন

পাল্টাপাল্টি কনস্যুলেট বন্ধের নির্দেশের পর চীনের চেংডু শহরে অবস্থিত যুক্তরাষ্ট্রের কনস্যুলেটের কর্মীরা চীন ছাড়ার প্রস্তুতি শুরু করেছেন। চীন সোমবারের মধ্যে এই কনস্যুলেট বন্ধের নির্দেশ দেয়ার পর সেখানকার কর্মকর্তারা কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থার মধ্যে ভবন খালি করতে শুরু করেছেন।

চীনের সরকারি সংবাদমাধ্যম সিজিটিএন বলছে, রোববার তিনটি মালবাহী ট্রাক মার্কিন কনস্যুলেট ভবন এলাকায় প্রবেশ করতে দেখা গেছে। এ সময় ইউনিফর্ম পরিহিত ও সাদা পোশাকের নিরাপত্তা কর্মীরা রাস্তায় টহল দেন।

সম্প্রতি চীনের পাল্টাপাল্টি কনস্যুলেট বন্ধের নির্দেশের ঘটনায় আন্তর্জাতিক রাজনীতির কেন্দ্রে চলে আসে চীনের সিচুয়ান প্রদেশের রাজধানী চেংডু এবং যুক্তরাষ্ট্রে টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের হিউস্টন। গত সপ্তাহে এই দুই শহরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত একে অপরের কনস্যুলেট বন্ধের নির্দেশ দেয় উভয় দেশ।

বিশ্বের বৃহৎ দুই অর্থনীতির দেশের সম্পর্কে সম্প্রতি মারাত্মক অবনতি ঘটেছে; যদিও কয়েক দশক আগে থেকেই তা একেবারে তলানিতেিছিল। বাণিজ্য যুদ্ধ, প্রাযুক্তিক মেধাস্বত্ব চুরির পাল্টাপাল্টি অভিযোগ, করোনাভাইরাস মহামারি, হংকং ও দক্ষিণ চীন সাগরের বিবাদ ঘিরে চীন-যুক্তরাষ্ট্র সম্পর্ক এখন খাদের কিনাড়ে অবস্থান করছে।

সিজিটিএন বলছে, রোববার চেংডুতে মার্কিন কনস্যুলেট ভবন খালি করার সময় শত শত মানুষ রাস্তায় দাঁড়িয়ে মোবাইল ফোনে ছবি এবং ভিডিও ধারণ করেন। পুলিশ পথচারীদের দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে সরে যাওয়ার নির্দেশ দেয়।

এছাড়া কনস্যুলেট ভবনের আশপাশের এলাকায় চেংডুর সব রাস্তা বন্ধ করে দেয়া হয়। এ সময় কনস্যুলেট ভবনের ও পুলিশের গাড়ি ছাড়া অন্য যানবাহন চলাচলে বাধা দেন নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা।

এর আগে, শুক্রবার চীনের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় সিচুয়ান প্রদেশের রাজধানী চেংডুতে অবস্থিত মার্কিন কনস্যুলেট সোমবারের মধ্যে বন্ধের নির্দেশ দেয় বেইজিং। মার্কিন এই কনস্যুলেট বন্ধে সোমবার স্থানীয় সময় সকাল ১০টা পর্যন্ত সময় বেধে দেয়া হয়।

মার্কিন মেধাস্বত্ত্ব চুরি এবং ব্যক্তিগত তথ্য হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে গত সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে অবস্থিত চীনের কনস্যুলেট বন্ধে ওয়াশিংটনের নির্দেশ আসার পর বেইজিংও পাল্টা পদক্ষেপ নেয়।