ভোটার হতে এসে যেসব সমস্যার মুখোমুখি তরুণ-তরুণীরা (ভিডিও)


» মুহাম্মদ গাজী তারেক রহমান | উত্তরা নিউজ, স্টাফ রিপোর্টার | সর্বশেষ আপডেট: ০৫ নভেম্বর ২০১৯ - ০৫:০৬:৫৫ অপরাহ্ন

উত্তরা ১১নং সেক্টর কল্যাণ সমিতি কার্যালয়ে চলছে নতুন ভোটারদের হালনাগাদ ও ছবি তোলার কার্যক্রম। ৫ নভেম্বর ভোটারদের ছবি তোলার তারিখ নির্ধারিত ছিল বিধায় সকাল থেকে কল্যাণ সমিতি প্রাঙ্গনে ভোটার হতে ইচ্ছুক প্রার্থীদের উপস্থিতি বেশ দেখার মত ছিল।

ভোটার হওয়ার নিমিত্তে ছবি তুলতে এসে তাদের অনুভূতির কথা উত্তরা নিউজে প্রকাশ করেছে আগত তরুণ-তরুণীরা। যাদের অধিকাংশের বয়স ১৮-২০ বছর।

কথা হয় ছবি তুলতে আসা আশিকের সাথে। আশিক জানায়, ভোটার হব, ভাবতে পেরে ভালো লাগছি। তবে দীর্ঘক্ষণ লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতে থাকতে অনেক আবারও বিরক্ত লাগছে।” আশিকের মত এমন তথ্য জানিয়েছে সুজন, রানা, শাকিলসহ আরও অনেকে।

অপরদিকে নারীদের লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা তরুণীরাও জানিয়েছে “দীর্ঘক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকার জন্য ফ্যানের ব্যবস্থা হলে ভালো হতো।”

নতুন ভোটার হওয়ার জন্য ছবি তুলতে আসা অনেকেই আবার অভিযোগ করে বলেন, “আমরা ছবি তোলার জন্য সকালে স্লিপ নিয়ে আসি। কিন্তু, এখানে এসে জানতে পারি নতুন ভোটারদেরকে জন্ম সনদের কপি, শিক্ষাগত যোগ্যতার সার্টিফিকেট, বাবা-মায়ের এনআইডি কার্ডের কপি ও বিদ্যুৎ বিলের ফটোকপি লাগবে। তাই আমাদেরকে ফিরে পুনরায় বাসায় গিয়ে সেগুলো নিয়ে আসতে হয়েছে। এটা যদি আমাদেরকে আগে থেকে জানিয়ে দেয়া হতো, তাহলে এই বিরম্বনায় পড়তে হতো না।”

নতুন ভোটার হতে আসা প্রার্থীগণ সাথে যেসব কাগজ-পত্র নিয়ে আসবেন: নতুন ভোটারগণ ছবি তোলার দিন প্রয়োজনীয় কাগজ-পত্র নিয়ে না আসলে আবারও ফিরে যেতে হবে বাসায়। এজন্য বাসা থেকে আসার সময় আপনার (১) জন্মসনদের অনলাইন কপি (২) শিক্ষা সনদের ফটোকপি, (৩) পিতা-মাতার জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি, (৪) বিদ্যুৎ বিলের ফটোকপি অবশ্যই সঙ্গে করে নিয়ে আসবেন।

উত্তরা থানা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. ফউজুল কবির খান উত্তরা নিউজকে তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন।