বুধবার, ২১ এপ্রিল ২০২১, ১১:০৩ পূর্বাহ্ন

ভোটযুদ্ধের তুমুল ঝঙ্কায় উত্তরের ৫৩নং ওয়ার্ড

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১৬ জানুয়ারী, ২০২০
  • ০ Time View

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন ৫৩ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর নির্বাচনকে কেন্দ্র করে টানটান উত্তেজনা বিরাজমান। ওয়ার্ডের বিভিন্ন স্থানে দিনভর প্রার্থীরা গণসংযোগ করছেন। ভোট চাইতে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন প্রার্থী ও সমর্থকরা। ডিএনসিসির উক্ত ওয়ার্ডে এবারের নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন পেয়েছেন গতবারের নির্বাচিত কাউন্সিলর বীর মুক্তিযোদ্ধা নাসির উদ্দিন, বিএনপির প্রার্থী হাজী মোস্তফা জামান। অপরদিকে, দলের মনোনয়ন না পেলেও প্রার্থী হিসেবে মাঠে আছেন তুরাগের আওয়ামী নেতা ও সাবেক হরিরামপুর ইউনিয়নের মেম্বার আলহাজ্ব মোঃ কফিল উদ্দিন।

আসন্ন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে এই ওয়ার্ডটিতে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের ইঙ্গিত রয়েছে। ৫৩নং ওয়ার্ডে বিএনপির কর্মী সমর্থকদের অবস্থান তুলনামূলকভাবে অনেক বেশি। দল দীর্ঘদিন ক্ষমতার বাইরে থাকায় ওয়ার্ডের অনেক নেতাকর্মী আওয়ামী লীগের ছত্রছায়ায় রয়েছে। তবে ভোটের মাঠে বিএনপির এসব কর্মী সমর্থকরা দলীয় প্রার্থী মোস্তফা জামানকেই ভোট দিবে এ নিয়ে কোন সন্দেহ নেই।


পড়ুন দৈনিক উত্তরা নিউজ এর আজকের ‘ভোটের হাওয়া’ পাতা

নিয়মিত দৈনিক উত্তরা নিউজ পেতে আজই হকারকে বলুন


এদিকে, আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা নাসির উদ্দিন এ ওয়ার্ডে গতবারের নির্বাচিত কাউন্সিলর। সেবারের নির্বাচনে বিএনপির অংশগ্রহণ না থাকায় দলের রাজনীতির সাথে জড়িত প্রার্থীদের সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে কাউন্সিলর হয়েছেন তিনি। গত কয়েক মাস যাবৎ জনপ্রতিনিধি হিসেবে দায়িত্ব পালন করে এলাকার মানুষের সাথে মেশার সুযোগ হয়ে তার। সেদিক থেকে অন্যান্য প্রার্থীদের তুলনায় জনসম্পৃক্ততায় বেশ এগিয়ে রয়েছেন এই প্রার্থী।

তবে অংশগ্রহণমূলক এবারের নির্বাচনে ভোটের মাঠে অনেকটা চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হবে নাসির উদ্দীনকে। এর মধ্যে বিদ্রোহী কফিল উদ্দিন অনেকটা চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। কেননা, অনেক আগ থেকেই তুরাগের এই ওয়ার্ডে বিচার-শালিস কার্যক্রমে ব্যাপক ভূমিকা থাকায় কফিল উদ্দিনের জনপ্রিয়তাও বেশ তুঙ্গে। নির্বাচনী প্রচারণার শুরু থেকেই ব্যাপকহারে গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন এই প্রার্থী।

 

অপরদিকে, বিএনপির প্রার্থী মোস্তফা জামানও চালিয়ে যাচ্ছেন প্রচারণা। নির্বাচনের মাঠে তুরাগের বিভিন্নস্থানে পোস্টারের পাশাপাশি মাঠ পর্যায়ে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে যেতে দেখা গেছে তাকে। নলভোগ, ফুলবাড়িয়া, তারারটেকসহ ওয়ার্ডের স্থানে স্থানে প্রচারণায় নেমেছে কফিল উদ্দিনও।

তবে, গতবার কাউন্সিলর নির্বাচিত হওয়ায় প্রচারণার মাঠে দলীয় নেতাদের পাশাপাশি ওয়ার্ডের নেতৃত্বস্থানীয়দের পাশে পাচ্ছেন বীর মুক্তিযোদ্ধা নাসির উদ্দিন। বেশ অল্প সময়ের জন্য কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়ে এলাকার উন্নয়নে তেমন পদক্ষেপ নিতে না পারলেও নিজের সর্বোচ্চ দিয়ে চেষ্টা করেছেন বলে জানিয়েছেন তিনি। ওয়ার্ডের বিভিন্ন রাস্তাঘাট গত কয়েক দশকেও উন্নয়ন-সংস্কার না হওয়ায় পরিবর্তনের আশ্বাস দেখিয়ে ভোটারদের আলাদা নজর কাড়ছেন অপর দুই প্রার্থী।

আসন্ন নির্বাচনে ডিএনসিসি ৫৩নং ওয়ার্ডে উভয় দলের মনোনীত প্রার্থীদের কর্মী, সমর্থক ও ভোটার থাকায় ওয়ার্ডটিতে তুমুল ভোট যুদ্ধের সম্ভাবনা রয়েছে। অত্র ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীর পাশাপাশি বিদ্রোহী প্রার্থী থাকায় বিএনপির প্রার্থীকে বাড়তি সুবিধা দিবে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা। তবে, টক্করে এগিয়ে আছেন বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সমর্থিত প্রার্থী ও বিদ্রোহী প্রার্থী উভয়েই।


প্রতিবেদনটি ছাপা আকারে পেতে সংগ্রহ করুন আগামীকালের দৈনিক উত্তরা নিউজ।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © uttaranews24
themesba-lates1749691102