ভারতে আইনজীবিদের বিরুদ্ধে পুলিশদের বিক্ষোভ


» মুহাম্মদ গাজী তারেক রহমান | উত্তরা নিউজ, স্টাফ রিপোর্টার | সর্বশেষ আপডেট: ০৬ নভেম্বর ২০১৯ - ১০:১২:১৪ পূর্বাহ্ন

আইনজীবীদের সঙ্গে বিবাদের জের ধরে ভারতের রাজধানী দিল্লির পুলিশ সদর দফতরের সামনে ব্যাপক বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল থেকেই সদর দফতরের সামনে অবস্থান নেন বিপুল সংখ্যক পুলিশ সদস্য। হাতে নানা প্ল্যাকার্ড নিয়ে বিক্ষোভে শামিল হন তারা।

গত শনিবার দুপুরে তিসহাজারি আদালতে লক-আপের বাইরে থাকা প্রহরীদের সঙ্গে বিবাদে জড়ান আইনজীবীরা। কিছুক্ষণের মধ্যেই সংঘর্ষের পরিস্থিতি তৈরি হয়। পুলিশকে মারধরের অভিযোগ উঠে আইনজীবীদের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় ৮ আইনজীবী ও ২০ পুলিশ সদস্য আহত হন। সংঘর্ষের জেরে কয়েকটি গাড়িতে ভাঙচুর ও আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়।

ওই ঘটনার পর সোমবার আদালতের বাইরে এক পুলিশ সদস্যকে হেনস্তার অভিযোগ উঠে একদল আইনজীবীর বিরুদ্ধে। এ নিয়ে পরিস্থিতি আরও অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে। এ ঘটনায় দুইটি এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। ইতোমধ্যেই এর বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কিন্তু বিক্ষোভে অনড় পুলিশ সদস্যরা। ‘রক্ষকদের সুরক্ষা দেওয়া হোক’, এমন দাবিতে মঙ্গলবার স্লোগান তোলে দিল্লির পুলিশ সদস্যরা।

এদিকে পুলিশের বিক্ষোভ পরিস্থিতি শান্ত করতে বারবার আশ্বাস দিয়েছেন দিল্লি পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। সংবাদসংস্থা পিটিআই জানিয়েছে, দিল্লির ডেপুটি পুলিশ কমিশনার এইশ সিংঘল বিক্ষোভকারীদের আশ্বাস দিয়েছেন, তাদের দাবি গুরুত্ব সহকারে দেখা হবে। তিনি বলেন, ‘‘আপনাদের ক্রোধ, দাবিদাওয়া শীর্ষ কর্মকর্তাদের জানানো হয়েছে। আপনাদের আশ্বস্ত করছি, প্রতিবাদ বিফল হবে না’’।

দিল্লির পুলিশ কমিশনার অমূল্য পটনায়ক বলেছেন, ‘‘সবার কাছে আর্জি রাখছি, দয়া করে শান্তি বজায় রাখুন। আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি ঠিক রাখা আমাদের দায়িত্ব।’’

অন্যদিকে, বার কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়ার তরফে আর্জি জানিয়ে আইনজীবীদের কাজে ফেরার আহ্বান জানানো হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে বিজেপি সভাপতি ও ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ নীরবতার সমালোচনা করেছে বিরোধী দল কংগ্রেস। সূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।