ব্রিটিশ ব্যাংকগুলোর জালিয়াতির বিরুদ্ধে পদক্ষেপ চান রুশনারা আলী


» উত্তরা নিউজ | অনলাইন রিপোর্ট | সর্বশেষ আপডেট: ০৭ নভেম্বর ২০১৯ - ০৯:৫৬:৪৯ পূর্বাহ্ন

যুক্তরাজ্যের ব্যাংকগুলোকে জালিয়াতি প্রতিরোধে পদক্ষেপ জোরালো করার আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ এমপি রুশনারা আলী। বুধবার (৬ নভেম্বর) ‘অর্থনৈতিক অপরাধ: গ্রাহক দৃষ্টিভঙ্গি’ শিরোনামের একটি প্রতিবেদন পার্লামেন্টে পেশ করে এই আহ্বান জানান হাউস অব কমন্স’র ট্রেজারি সিলেক্ট কমিটির সংসদীয় তদন্ত দলের নেতা রুশনারা। তিনি বলেন, নিয়ন্ত্রণ সংস্থা ব্যাংকগুলোকে অনুমোদন দেওয়ার আগে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ২০২০ সালের মার্চ পর্যন্ত সময়সীমা নির্ধারণ করেছে।

রুশনারা আলী বলেন, “যুক্তরাজ্য ও সারা বিশ্বের অর্থনৈতিক অপরাধের ‘গুরুতর ও ক্রমবর্ধমান সমস্যা’ মোকাবিলায় অথোরাইজড পুশ পেমেন্ট (এপিপি) জালিয়াতির শিকার গ্রাহকদেরকে ক্ষতিপূরণ পরিশোধের বিষয়টি বিবেচনা করা উচিত।’
বাংলাদেশি অভিবাসী অধ্যুষিত পূর্ব লন্ডনের বেথনাল গ্রিন ও বো এলাকা থেকে নির্বাচিত লেবার পার্টির এই এমপি বলেন, ‘কেলেঙ্কারিগুলো এতো বেশি নিখুঁত হওয়ায় এটা পরিষ্কার যে, অর্থনৈতিক অপরাধ যুক্তরাজ্যের মারাত্মক ও ক্রমবর্ধমান সমস্যায় পরিণত হয়েছে।’
গ্রাহকরা যে অর্থনৈতিক অপরাধের মুখোমুখি হচ্ছেন, আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো যেভাবে অর্থনৈতিক অপরাধের বিরুদ্ধে লড়াই করছে, অর্থনৈতিক অপরাধ কীভাবে তদন্ত করা হয়, ভোক্তার অধিকার ও দায়বদ্ধতাগুলো পরীক্ষা করছে ট্রেজারি কমিটি।
ওই কমিটির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চলতি বছরের প্রথম ছয় মাসে ৬৫৩৪ কোটি ৮৫ লাখের অধিক টাকা ভোক্তার কাছ থেকে জালিয়াতি করে নিয়েছে প্রতারকচক্র। ভোক্তার ইন্টারনেট সেবাদানকারী হিসেবে নিজেকে প্রকাশ করে ‘রোমান্স জালিয়াতি’তে তৎপর হয় তারা, এটা একটি মারাত্মক সমস্যা। এপিপিতে একজন ভোক্তা এমনটি অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে টাকা লেনদেনে যুক্ত, যা নিয়ন্ত্রণ করে একজন প্রতারক।
কমিটির ভাষ্য, ‘প্রতারকরা প্রায়শই গ্রাহকদের অর্থ হস্তান্তরের জন্য উচ্চপর্যায়ে কৌশলগুলো ব্যবহার করে। প্রতারিত হচ্ছে এমনটা ভাবারও সময় দেওয়া হয় না কাউকে।’’