শিপার মাহমুদ (জুম্মান) শিপার মাহমুদ (জুম্মান)
স্টাফ রিপোর্টার, উত্তরা নিউজ


ব্যারিস্টার সুমন ও বাংলাদেশের তরুণ প্রজন্ম






ব্যারিস্টার সৈয়দ সাইদুল হক সুমন হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট উপজেলার সন্তান, তিনি হবিগঞ্জের সন্তান হলেও ইতিমধ্যে সারাদেশে মানবতার ফেরিওয়ালা হিসেবে খ্যাতি অর্জন করেছেন। যেখানে মানবতার আর্তনাদ-সেখানেই ছুটে চলেন এই মানবতার ফেরিওয়ালা। তরুন এই যুবক ব্যারিস্টার সৈয়দ সাইদুল হক সুমন বাংলার পুর্ব থেকে পশ্চিম-উত্তর থেকে দক্ষিণ সারাদেশেই ইতিমধ্যে সামাজিক উন্নয়ন ও মানবতার এক দৃষ্টান্ত স্থাপন তৈরী করেছেন সবার কাছে। যেখানেই দেখছেন সমস্যা ও অসঙ্গতি সেখনেই নিজ উদ্যোগে দাঁড়িয়ে যান সমস্যা ও অসঙ্গতি নিরসনের লক্ষে। ফেইসবুক লাইভের মাধ্যমে সবার কাছে এই সমস্যাগুলো তুলে ধরেন এবং সমাধানের জন্য জনপ্রতিনিধিদের দৃষ্টি আকর্ষন করে সাধারণ মানুষের পক্ষে থেকে সমাধানের দাবি করেন।

তাঁর এই সামাজিক ও মানবিক কর্মকান্ডকে সাদরে গ্রহণ করে স্বাগত জানাচ্ছেন বাংলার তরুণ সমাজ, বিশেষ করে হবিগঞ্জ তাঁর নিজ এলাকা চুনারুঘাটে সামাজিক উন্নয়নের এক বিশাল নজির স্থাপন করেছেন। তাঁর নিজ এলাকায় শিক্ষার্থীদের যাতায়াত ও সাধারণ মানুষের চলাচলের জন্য নিজের অর্থায়নে এ পর্যন্ত ২৬ টি ব্রিজ ও ৫টি রাস্তা নির্মাণ করেছেন এবং  ৪০টি রাস্তা সংস্কার করে দিয়েছেন।  হবিগঞ্জে জেলায় অবস্থিত প্রায় সব স্কুল/কলেজের শিক্ষার্থীদের উৎসাহ ও বিভিন্ন সহযোগিতা করে যাচ্ছেন। বাংলাদেশের আলোচিত নুসরাত জাহান রাফি হত্যাকান্ড নিয়ে মামলার বাদি হিসেবে ওসি মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে আইনি লড়াইয়ে মধ্য দিয়ে মানবতা ও জনপ্রিয়তার আকাশচুম্বি ইতিহাস তৈরি করেছেন। এভাবেই দিনদিন এগিয়ে চলছেন মানবতার এই ফেরিওয়ালা।

তাঁর এই জনপ্রিয়তা দেখে একদল দেশদ্রোহী কুচক্রি মহল তাকে গায়েল করার জন্য পিছু লেগেছে, বেশ কয়েকদিন ধরেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাঁর বিরুদ্ধে বিভিন্ন কুৎসা রটানো শুরু করেছেন। ইদানীং তাঁর নামে ফেইসবুকে ভুয়া পেইজ খোলে বিভ্রান্তিমূলক পোস্ট দিয়ে তাকে সমালোচিত করার চেষ্টা করছেন। এর মধ্যেই ব্যারিস্টার সুমন তাঁর ব্যক্তিগত পেইজ থেকে এই ভুয়া পেইজ সম্পর্কে সবাইকে সতর্ক ও করেছেন। এমনকি এই বিষয়ে থানায় একটি (জিডি) ও করেছেন।
এরপরও হিন্দু সম্প্রদায়ের একদল লোক তাকে হেনেস্থা করার জন্য তাঁর বিরুদ্ধে আদালতে একটি মামলা করেছেন, মামলায় অভিযোগ করেন- গত ১৯ জুলাই ব্যারিস্টার সুমন ফেইসবুকে বলেন, “পৃথিবীর মধ্যে নিকৃষ্ট এবং বর্বর জাতি হচ্ছে হিন্দু ধর্মাম্বলী, যাদের কোন ভিত্তি নেই। মনগড়া বানানো ধর্ম”

যা নিছক একটি অসত্য স্ট্যাটাস, যা ব্যারিস্টার সুমনকে ফাঁসানোর পাঁয়তারা ছাড়া কিছুইনা। আর এই পাঁয়তারা ও ষড়যন্ত্র মোকাবেলায় প্রতিবাদে দলমত নির্বিশেষে আজ সারাদেশে মানববন্ধন করেছেন দেশের তরুণ ও শিক্ষার্থীরা।

সবশেষ একটি কথাই বলব, ব্যারিস্টার সুমন কেবলমাত্র হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট উপজেলারই নয় বরং কঠিন বাস্তবতায় বেড়ে উঠা ব্যারিস্টার সুমন পুরো বাংলাদেশের সম্পদ। আর এই সম্পদকে নিয়ে যারা অপ-তৎপরতামূলক কুৎসা রটানোর মত জঘন্য কাজে উঠে পড়ে লাগবে, ওরা কখনোই সফল হবেনা। নিশ্চয়ই বাংলাদেশের এই পবিত্র মাটিতে ব্যারিস্টার সুমনরাই বার বার বিজয়ী হবে। ইনশাআল্লাহ।

লেখক- শিক্ষার্থী ও গণমাধ্যমকর্মী