বাস ভাড়া বৃদ্ধি জনগণের সঙ্গে জুলুম : ন্যাপ


» উত্তরা নিউজ ডেস্ক জি.এম.টি | | সর্বশেষ আপডেট: ৩১ মে ২০২০ - ১০:৫০:০০ অপরাহ্ন

করোনাভাইরাস সঙ্কটের সময়ে বিআরটিএর সুপারিশের পরিপ্রেক্ষিতে বাস ভাড়া ৬০ শতাংশ বৃদ্ধি করে সরকারের পক্ষ থেকে প্রজ্ঞাপন জারির ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ ও তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির (ন্যাপ) চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি ও মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া।

তারা বলেছেন, এই মুহূর্তে বাস ভাড়া বৃদ্ধি জনগণের সাথে জুলুম। করোনাকালীন এই দুর্যোগে এমনিতেই সাধারণ মানুষ অর্থ কষ্টে রয়েছে। কাজকর্ম, ব্যবসা-বাণিজ্য, দোকানপাট, সমস্ত কিছু বন্ধ থাকায় গত কয়েক মাসে তাদের সংসার চালাতে হিমশিম খেতে হয়েছে। তার ওপর যদি বাস ভাড়া বৃদ্ধির মাধ্যমে জনগণের সঙ্গে চরম প্রতারণা করা হলো। গণপরিবহনের ভাড়া বৃদ্ধির কোনো যৌক্তিক কারণ নেই।

রোববার (৩১ মে) গণমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় এসব কথা বলেন।

তারা বলেন, গণপরিবহনের ভাড়া বৃদ্ধির মাধ্যমে নতুন করে সাধারণ মানুষের পকেট কাটার সরকারি এই সিদ্ধান্তই প্রমাণ করে তারা লুটেরা শ্রেণির পক্ষে। সাধারণ মানুষ নিয়ে তাদের কোনো ভাবনা নেই। বার বার প্রমাণিত হয়েছে, কোনো ধরনের সঙ্কট বা অজুহাতে আমাদের দেশে গণপরিবহনের ভাড়া বৃদ্ধি করলেও তা আর কখনওই কমানোর কোনো নজির নেই।

নেতৃদ্বয় বলেন, ঢাকা মহানগরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে কিভাবে গণপরিবহন চলবে, তা কোনোভাবেই দেশবাসীর কাছে বোধগম্য নয়। যেখানে বিআরটিএ ফিটনেসবিহীন গাড়ি চলাচলের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নিতে পারে না, সেখানে স্বাস্থ্য বিধি মেনে গাড়ি চালাতে বাধ্য করবে এটা জনগণের কাছে বিশ্বাসযোগ্য নয়।

বিবৃতিতে তারা অবিলম্বে ৬০ শতাংশ ভাড়া বৃদ্ধি করে জারিকৃত প্রজ্ঞাপন বাতিলের দাবি জানিয়ে বলেন, যদি সত্যিই স্বাস্থ্যবিধি মেনে কোনো পরিবহন চলে, তাহলে যদি বাস মালিকের ক্ষতি হয়, তা সরকার ভর্তুকি দিয়ে পূরণ করুক, সরকার কোনো দায়িত্ব না নিয়ে সব জনগণের কাঁধে চাপিয়ে দেবে কেন।