বার্সাকে নায়ক বানিয়েছেন অধিনায়ক মেসি ও সুয়ারেজ।

উত্তরা নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমঃ

মঙ্গলবার রাতে ভিয়ারিয়ালের মাঠ এস্তাদিও ডি লা সেরামিকায় যেন ‘নায়ক-খলনায়ক’-এর কাব্যই রচনা করল টিম বার্সেলোনা। মানে বার্সেলোনার খেলোয়াড়রা একই সঙ্গে নায়ক এবং খলনায়কও! তবে ম্যাচে বার্সেলোনার যেমন একক কোনো নায়ক নেই, তেমনি এককভাবে কেউ খলনায়কও নন। যার অর্থ, সবাই নায়ক, সবাই খলনায়ক!

ম্যাচের চিত্রটা বিশ্লেষণ করলেই বিষয়টি স্পষ্ট হবে। ম্যাচে প্রতিপক্ষ ভিয়ারিয়ালকে গুণে গুণে ৪টি গোল দিয়েছেন বার্সেলোনার খেলোয়াড়রা। সুতরাং গোলদাতা ফিলিপে কুতিনহো, ম্যালকম, লিওনেল মেসি এবং লুইস সুয়ারেজরা নায়ক। আবার গুণে গুণে ৪টি গোলও হজম করেছে বার্সেলোনা। সেক্ষেত্রে নিশ্চিতভাবেই বার্সার খেলোয়াড়রা খলনায়কের ভূমিকায়!

এই নায়ক-খলনায়ক বনে যাওয়ার নাটকটাও মঞ্চস্থ হয়েছে পর্বে পর্বে। ম্যাচের ১৫ মিনিটের মধ্যেই কুতিনহো ও ম্যালকমের সুবাদে ২-০ গোলে এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। এই তথ্য স্পষ্ট করেই বলছে, বার্সার শুরুটা হয়েছিল বীরোচিত। কিন্তু এরপর ম্যাচের ২৫ থেকে ৮১ মিনিটের গল্পে বার্সেলোনার খেলোয়াড়রা কেবলই খলনায়কের ভূমিকায়।

এই ৫৬ মিনিটের পর্বেই গুণে গুণে ৪টি গোল হজম করেছে বার্সা। ২-০ গোলে এগিয়ে যাওয়া ম্যাচে পিছিয়ে পড়ে ৪-২ গোলে! ৫৬ মিনিটের এই ভিলেনি কাব্য মুছে ফেলে ম্যাচের শেষ মুহূর্তে আবার নায়কের বেশে বার্সা। শেষ মুহূর্তে  মানে মেসি-সুয়ারেজ বার্সার শেষ মূহূর্তের নায়ক।

 

/এ.এইচ.বি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: