বন্ধু রাষ্ট্র ভারত মিথ্যাবাদী, সীমান্ত হত্যা বন্ধে কথা দিয়ে কথা রাখেনি

বলেছেন প্রতিবাদী মুখ হানিফ বাংলাদেশী

» উত্তরা নিউজ ডেস্ক জি.এম.টি | | সর্বশেষ আপডেট: ২৬ জানুয়ারি ২০২০ - ১২:৫০:৪৭ অপরাহ্ন

প্রতিবেশী বন্ধু রাষ্ট্র ভারত মিথ্যাবাদী, সীমান্ত হত্যা বন্ধে বারবার কথা দিয়ে তারা কথা কথা রাখেনি। ২৬ জানুয়ারি রোববার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সীমান্ত হত্যার প্রতিবাদে অবস্থান কর্মসূচি পালনকালে হানিফ বাংলাদেশী কথা বলেন।

তিনি বলেন, ভারতের সাথে বাংলাদেশের সীমান্ত নিয়ে কোন বিরোধ নেই। তারপরও প্রতিনিয়ত বাংলাদেশ ভারত সীমান্ত গরু পাচারকারীর নাম দিয়ে নিরীহ বাংলাদেশিদের নির্বিচারে পাখির মত গুলি চালিয়ে হত্যা করা হয়। ভারতের সাথে তাদের অন্যান্য প্রতিবেশি পাকিস্তান, চীন, নেপাল ও মিয়ানমারের সীমান্ত বিরোধ আছে। কিন্ত সেখানেও গুলি করে নিরস্ত্র সাধারণ মানুষকে হত্যা করা হয় না।

হানিফ বাংলাদেশী আরো বলেন, গত ২৩ দিনে সীমান্তে ১৫ জন বাংলাদেশিকে হত্যা করেছে বিএসএফ। বিএসএফের দাবি নিহতরা গরু পাচারকারী। আমাদের দাবি গরু পাচারকারী হলেও ভারত সীমান্তে ধরা পড়লে ভারতের প্রচলিত আইনে এদের বিচার করা হোক। গরু পাচারকারী অভিযোগে নিরীহ মানুষকে এভাবে গুলি করে হত্যা করা প্রতিবেশী বন্ধু রাষ্ট্রের কাছে কাম্য হতে পারে না।

আমাদের দেশের মন্ত্রীরাও বলেন গরু আনতে গিয়ে হত্যার শিকার হলে তার দায় বাংলাদেশ নেবে না। এটা দুর্ভাগ্যজনক  গরু পাচারকারী হলেও এরা এদেশের নাগরিক। এদেশের প্রচলিত আইনে এদের বিচার হবে। নিজ দেশের জনগণকে অন্যদেশ কর্তৃক হত্যার বৈধতা দেওয়া মোটেও কাম্য হতে পারে না। সীমান্ত হত্যা বন্ধে ও জনগণের জানমাল রক্ষায় কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ এবং বহুমাত্রিক কূটনৈতিক তৎপরতা জোরদারের দাবি জানাচ্ছি।

এসময় সীমান্তে হত্যা বন্ধসহ ৪ দফা দাবিতে আমরণ অনশনে থাকা জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাবী ছাত্র আরিফ আদিব এর দাবির প্রতি একাত্মতা প্রকাশ করে সংহতি জানান হানিফ বাংলাদেশী। – প্রেস বিজ্ঞপ্তি