উত্তরা নিউজ উত্তরা নিউজ
অনলাইন রিপোর্ট


বঙ্গবন্ধুর মতো করে দেশকে ভালোবাসার আহবান ডিএনসিসি মেয়রের






ঢাকা, ২৬ আগস্টঃ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশকে যে পরিমান ভালোবাসতেন তার কিয়দাংশও যদি আমরা বাসতে পারি তবেই বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়া সম্ভব। আজ বেলা ১:৩০টায় রাজধানীর বনানীতে অবস্থিত ফারইস্ট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি আয়োজিত “জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪৪তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা ও রক্তদান কর্মসুচি” অনুষ্ঠানে মেয়র এ কথা বলেন। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু সারাটি জীবন দেশের জন্য, দেশের মানুষের জন্য কাজ করেছেন, এই দেশকে, দেশের মানুষকে ভালোবেসে, দেশের জন্য জেল খেটেছেন, এমনকি নিজের জীবন দিতেও পিছু পা হননি। কিন্তু ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট আমরা সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্বপরিবারে হারিয়েছি। আমরা দোয়া করি মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিন যেন বঙ্গবন্ধুসহ ১৫ আগস্ট নিহত তাঁর পরিবারের সকল সদস্য ও অন্যদের জান্নাতবাসী করেন।

মেয়র আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু যেভাবে দেশকে ভালোবাসতেন, আমরা যদি তার এক শতাংশও দেশকে ভালোবাসতাম তবে আমরা যেখানে সেখানে ময়লা ফেলতাম না। দেশের মানুষকে ভালোবাসলে আমরা তাদের কষ্ট হয় এমন কোন কাজ করতাম না। আইনশৃঙ্খলা মেনে চলতাম, সরকারি সম্পত্তি অপদখল বা নষ্ট করতাম না, সুনাগরিক হিসাবে আমাদের নাগরিক দায়িত্ব পালন করতাম। একটু চিন্তা করে দেখেন আমরা ফুটওভারব্রিজ ব্যবহার করতে অনীহা প্রকাশ করি, সুযোগ পেলেই আমরা ফুটওভারব্রিজ ব্যবহার না করে ব্যস্ত রাস্তা পার হয়ে যাই। এটি ঠিক না, সচেতন হতে হবে আমাদের। মনে রাখবেন আপনি নিজে বদলালে বদলে যাবে দেশ। বয়ষ্ক ও নারীদের সুবিধার্থে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন “প্রয়োজনে ফুটওভারব্রিজে চলন্ত সিঁড়ি করে দেয়া হবে, তাও যেন মানুষ ফুটওভারব্রিজ ব্যবহার করে।”আমরা সেব্যবস্থাও করছি।

তিনি আরো বলেন, আমরা শুধু নিজেকে নিয়ে চিন্তা করি, আমরা শুধু ভাবি আমার কি হবে, আমার কি হবে, কিন্তু বঙ্গবন্ধু কোনদিন নিজেকে নিয়ে ভাবেন নি, তিনি সারাটি জীবন দেশের জনগনের কথা ভাবতেন। আমাদের বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ধারন করতে হবে।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু না জন্মালে আমরা কেউ আজকে এই অবস্থানে আসতে পারতাম না। আমাদের সকলের উচিত বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার জন্য দোয়া করা, তার নির্দেশ অনুযায়ী বাংলাদেশের উন্নয়নে নিরন্তর কাজ করে যাওয়া। আসুন আমরা দেশকে ভালোবাসি, নিজ নিজ নাগরিক দায়িত্ব পালন করি, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন দেশ গড়ে ডেঙ্গুমুক্ত বাংলাদেশ নিশ্চিত করি।

ফারইস্ট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির বোর্ড অব ট্রাস্টিজ এর চেয়ারম্যান শেখ কবির হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপাচার্য অধ্যাপক ড. নাজমুল করিম চৌধুরী, সকল ফ্যাকাল্টির ডিন ও শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।