প্রথমবারের মতো ভারত থেকে সজনে আমদানি হচ্ছে

২) ভালো চাহিদা থাকায় ও দাম ভালো পাওয়ায় দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে সজনে আনা হচ্ছে। পরে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে এসব সজনে সরবরাহ করা হচ্ছে। ৩) হিলি স্থলবন্দরের জনসংযোগ কর্মকর্তা জানান, বন্দর দিয়ে আগে কোনোদিন ভারত থেকে সজনে আমদানি হয়নি। গত এক সপ্তাহের বেশি সময় ধরে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে সজনে আমদানি শুরু হয়েছে। বন্দর দিয়ে গড়ে প্রতিদিন এক থেকে দুই ট্রাক (মিনি পিকআপ) করে সজনে আমদানি হচ্ছে।
৪) প্রথমবারের মতো সজনে আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান খান ট্রেডার্সের সত্ত্বাধিকারী ও হিলি স্থলবন্দর আমদানি-রপ্তানিকারক গ্রুপের সভাপতি হারুন উর রশীদ হারুন জানান, এখনও বাজারে দেশীয় সজনে উঠেনি। এছাড়াও স্বাদে ভালো ও দেখতে মোটা হওয়ার কারণে দেশের বাজারে ভারতীয় সজনের বেশ চাহিদা রয়েছে। এক সপ্তাহের বেশী সময় ধরে ভারত থেকে দেশে সজনে আমদানি করা হচ্ছে। প্রতি টন সজনে আড়াইশো মার্কিন ডলার মূল্যে আমদানি করা হচ্ছে। আর কাস্টমসে ৫শ মার্কিন ডলার মূল্যে শুল্কায়ন করা হচ্ছে। এতে প্রতি কেজি সজনেতে ১৫ টাকার শুল্ক পরিশোধ করতে হচ্ছে। এছাড়া বন্দরের মাশুলসহ মোট ২০ টাকার মতো খরচ দিতে হচ্ছে।
৫) দেশের বাজারে ভারতীয় সজনে পাইকারিতে প্রতি কেজি ১শ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। তবে প্রথমদিকে প্রতি কেজি সজনে ১৫০ থেকে ১৬০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছিলো। এখন দাম খানিকটা কমে এসেছে। রাজধানী ঢাকাসহ রংপুর, দিনাজপুর, বগুড়াসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে এসব সজনে সরবরাহ করা হচ্ছে। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে দেশীয় জাতের সজনে উঠতে শুরু করলে ভারতীয় সজনের আমদানি বন্ধ হয়ে যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *