প্রতিষ্ঠানে ছাত্রীদের ওড়না নিষিদ্ধ করা একটি ভয়ানক ইসলাম বিদ্বেষী ষড়যন্ত্র।: পীর সাহেব চরমোনাই


» এইচ এম মাহমুদ হাসান | | সর্বশেষ আপডেট: ১৭ জানুয়ারি ২০২০ - ১০:১৪:৪৭ অপরাহ্ন

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই রাজধানীর মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল ও বনশ্রী আইডিয়ালে মেয়েদের ওড়না পরা নিষিদ্ধ করে প্রজ্ঞাপন জারি করায় গভীর উদ্বেগ ও ক্ষোভ প্রকাশ করে এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

এক বিবৃতিতে পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, স্কুল গভর্নিং বডি এধরণের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে ক্ষমার অযোগ্য অপরাধ করেছেন। অবিলম্বে ইসলাম বিদ্বেষী এই সিদ্ধান্ত বাতিল করতে হবে। অন্যথায় দেশের ইসলামীপ্রিয় জনগণ বিশেষ করে বিভিন্ন ইসলামী দলের আলেম ওলামা ও স্কুল মাদরাসার শিক্ষক ছাত্ররা মাঠে নামতে বাধ্য হবে।
পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, গভর্নিং বডির সদস্য ও শিক্ষকদের এমন সিদ্ধান্তে শুধু ইসলামের অবমাননাই হচ্ছে না স্কুল দুটিও হারাচ্ছে তাদের ঐতিহ্য।

পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, হিজাব বা পর্দা শরীয়তের অলঙ্ঘনীয় বিধান। এই বিধান অস্বীকার করলে ঈমান থাকে না। এই স্কুলের শুরুতে মেয়েদের পোশাক ছিল ফ্রকের মতো গোল ঘেরা জামা, সেলোয়ার, হিজাব অথবা ওড়না। আর ছেলেদের পোশাক ছিল সাদা শার্ট নীল প্যান্টের সাথে সাদা টুপি। এটাই ছিলো ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্য্যের এই প্রতিষ্ঠানের ঐতিহ্য। এমন একটি ঐতিহ্যবাহী প্রতিষ্ঠানের ছাত্রীদের ওড়না নিষিদ্ধ করা একটি ভয়ানক ইসলাম বিদ্বেষী ষড়যন্ত্র।

বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস: এদিকে, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের আমীর শায়খুল হাদীস আল্লামা ইসমাঈল নূরপুরী সিনিয়র নায়েবে আমীর মাওলানা যোবায়ের আহমদ আনসারী ও মহাসচিব মাওলানা মাহফুজুল হক এক যুক্ত বিবৃতিতেও মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল ও বনশ্রী আইডিয়ালে মেয়েদের ওড়না পরা নিষিদ্ধের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ করে বলেন, পর্দা ইসলামের ফরজ বিধান। এ বিধান পালন প্রতিটি নারীর জন্য অত্যাবশ্যক। অত্র প্রতিষ্ঠানে শুরু থেকেই মেয়েদের জন্য হিজাব অথবা ওড়না পরার নিয়ম ছিলো। কিন্তু গভর্নিং বডি ওড়না বা হিজাব পরতে পারবে না বলে একটি প্রজ্ঞাপন জারি করেছে। তা কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায় না। অবিলম্বে ইসলাম ও শরিয়াহ বিরোধী প্রজ্ঞাপন বাতিল করতে হবে।