প্রতিমন্ত্রীর পাশে দাঁড়ানো নিয়ে এমপি ও আ.লীগ নেতার হাতাহাতি


» উত্তরা নিউজ | অনলাইন রিপোর্ট | সর্বশেষ আপডেট: ০৪ নভেম্বর ২০১৯ - ০১:৫০:১৩ অপরাহ্ন

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেনের সামনে স্থানীয় এমপি গাজী মোহাম্মদ শাহনওয়াজ মিলাদ ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল জাহান চৌধুরীর মধ্যে বাকবিতণ্ডা ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। গতকাল রোববার উপজেলার উমরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রীর পাশে দাঁড়ানো নিয়ে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় উত্তেজনা দেখা দিলে পুলিশের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।

উপস্থিত নেতাকর্মীরা জানান, রোববার উমরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন আসেন। তিনি বিদ্যালয়ে প্রবেশের সময় স্থানীয় নেতাকর্মীরা ফুল দিয়ে বরণ করেন। ফিতা কাটতে তিনি নাম ফলকের দিকে এগিয়ে এলে পাশে দাঁড়ানো নিয়ে স্থানীয় এমপি গাজী মোহাম্মদ শাহনওয়াজ মিলাদ ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল জাহান চৌধুরীর মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়। এ সময় পেছন থেকে দেবপাড়া ইউপি সদস্য শিবলু আহমদ এসে ধাক্কাধাক্কি শুরু করলে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।

একপর্যায়ে উভয়পক্ষের লোকজনের মধ্যে হাতাহাতি ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় অনুষ্ঠানস্থলে উত্তেজনা দেখা দিলে পুলিশের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়। এ সব ঘটনার ফাঁকে প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন ফিতা কেটে নবনির্মিত একাডেমিক ভবনের উদ্বোধন করেন। পরে আলোচনা সভায় তিনি প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন।

যুক্তরাষ্ট্রের লেস্টার আওয়ামী লীগের সভাপতি সৈয়দুর রহমান সাঈদের সভাপতিত্বে এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন সংসদ সদস্য গাজী মোহাম্মদ শাহনওয়াজ মিলাদ, সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য জহুরা আলাউদ্দিন, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ডা. মুশফিক হোসেন চৌধুরী, নবীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফজলুল হক চৌধুরী, জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তৌহিদ-বিন-হাসান, সহকারী পুলিশ সুপার (নবীগঞ্জ-বাহুবল সার্কেল) পারভেজ আলম চৌধুরী, আওয়ামী লীগ নেত্রী ডা. নাজরা চৌধুরী, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান গতি গোবিন্দ দাশ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ইমদাদুর রহমান মুকুল, সাধারণ সম্পাদক সাইফুল জাহান চৌধুরী, যুগ্ম সম্পাদক কাজী ওবায়দুল কাদের হেলাল প্রমুখ।

সহকারী পুলিশ সুপার পারভেজ আলম চৌধুরী জানান, অনুষ্ঠানে কিছু সমস্যা হয়েছিল। তবে পুলিশের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।