‘পেঁয়াজ আছে কিন্তু দেখা যাচ্ছে’


» উত্তরা নিউজ | অনলাইন রিপোর্ট | সর্বশেষ আপডেট: ১৫ নভেম্বর ২০১৯ - ০৭:১৭:৪০ পূর্বাহ্ন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, পৃথিবীর কোন দেশে পেঁয়াজ পাওয়া যায় সেটা খোঁজ নিয়ে আমরা নিয়ে আসার ব্যবস্থা নিচ্ছি। ইতোমধ্যেই পাঁচ হাজার মেট্রিকটন এলসি খোলা হয়েছে। সেখানে লোক চলে গেছে। কিছু দিনের মধ্যেই চলে আসবে।

বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদের পঞ্চম অধিবেশনের সমাপ্তি অধিবেশনে বক্তব্য দিতে গিয়ে একথা বলেন তিনি। এর আগে পেঁয়াজ নিয়ে কথা বলেন মুজিবুল হক চুন্নু।

তার বক্তব্যের জবাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের এক সংসদ সদস্য বলেছেন- ইন্ডিয়ায় নাকি পেঁয়াজের কেজি আট টাকা। মাননীয় স্পিকার এটা ইন্ডিয়ার একটি স্টেটে। অন্য কোনো স্টেটে তারা সেই পেঁয়াজ যেতে দিচ্ছে না। অন্যান্য জায়গায় ১০০ টাকা রুপি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, তাদেরই পেঁয়াজের অভাব এবং তারা আমদানি করছে। তারপরও আমার অনুরোধে যেসব এলসি খোলা হয়েছিল সে পেঁয়াজগুলো আমরা আনতে পেরেছিলাম। কিন্তু আমাদের দেশে পেঁয়াজের দাম বাড়ছে। পেঁয়াজ কিন্তু আছে তা দেখা যাচ্ছে। আমরা টানা অভিযান চালিয়েছি। দেখা যাচ্ছে পেঁয়াজ পচে যাচ্ছে। কিন্তু পেঁয়াজ বাজারে ছাড়ছে না। এ জন্য আমরা টিসিবির মাধ্যমে বিভিন্ন অঞ্চলে পেঁয়াজ বিক্রি করছি। পাশাপাশি আমরা বিদেশ যেমন তুরস্ক ও মিশর থেকে পেঁয়াজ আমদানি শুরু করেছি। সেখানে আমাদের কর্মকর্তারা চলে গেছেন।

তিনি বলেন, আমি নির্দেশ দিয়েছি আসার সাথে সাথেই জেলায় জেলায় ট্রাকে করে চলে যাবে। এ ব্যাপারে আমরা যথেষ্ট সচেতন আছি যাতে এই সমস্যাটা না হয়।

তিনি বলেন, আমাদের দেশে আসলে শুধুমাত্র একটি মৌসুমে পেঁয়াজ উৎপাদন হয়। ১২ মাস যাতে হতে পারে সেভাবে উদ্ভাবন করেছেন আমাদের বিজ্ঞানীরা। আমরা ভবিষ্যতে এই পেঁয়াজের বীজ বাজারজাত করব। সে সময় আর কারও মুখাপেক্ষী হয়ে থাকতে হবে না। আমাদের নিজের চাহিদা আমরা নিজেরাই উৎপাদন করতে পারব।

উত্তরা নিউজ/এস,এম,জেড