পার্বত্য বান্দরবানে রুমা উপজেলায় ইউএনডিপির ও জেলা পরিষদে উদ্দ্যোগে প্রান্তিক দুর্গম এলাকায় ৬ হাজার ১ শত ৯৫ পরিবারের মাঝে করোনার ত্রান সামগ্রী বিতরণ


» এইচ এম মাহমুদ হাসান | | সর্বশেষ আপডেট: ১৫ অগাস্ট ২০২০ - ১০:৩৩:১৮ পূর্বাহ্ন

পানোয়াম বম, রুমা(বান্দরবান) প্রতিনিধি.
করোনা ভাইরাসে সংক্রমনে প্রতিরোধর স্বার্থে সারা দেশে লকডাউন শুরু হয় বিগত মার্চ মাসের থেকে, পাশেপাশি বান্দরবানে ও ব্যাপক ভাবে করোনা দুর্প্রাভাব দেখা দিলে এপ্রিল মাসে মাঝামাঝি সময়ে বান্দরবান শহর কে রেড জোন ও পর্বতী সপ্তাহখানে পরে রুমা উপজেলা কে করোনা ভাইরাসের বিপদজন এলাকার হিসেবে চিন্চিত করে রেড জোন ঘোষনা করে প্রশাঁসন।
প্রসংগত,  বান্দরবান লকডাউনে শুরু হাওয়া দুই এক মাসে মধ্যে এলাকায় নেমে আসে ব্যাপক আকারের খাদ্য সংকটরতা, যার ফলে এলাকার খাদ্য সকট নিরসনে লক্ষে সরকারী বেসরকারী সংস্থা সহ বিভিন্ন স্থানীয় মানবিক স্বেস্বাসেবী সংগঠনেরা পর্য়াপ্ত ত্রান তৎপরতা চালিয়ে যায়।
এর ধারাবাহিকতা আজ (১৪ আগষ্ট) শুক্রবার রুমা উপজেলার সরকারী সাংগু কলেজে মাঠ প্রাঙ্গনে বান্দরবান জেলা পরিষদ ও ইউএনডিপি এর যৌথ উদ্দ্যোগে প্রান্তিক দুর্গম দুঃস্থ ও কর্মহীন ৬ হাজার ১ শত ৯৫ পরিবারের মাঝে করোনা ক্রান্তিকালীন খাদ্য শষ্যা অনদান হিসেবে ত্রান সামগ্রী বিতরন করেছে, জানা গেছে।
বিগত এপ্রিল ও মে মাসে  বান্দরবান জেলায় করোনা পরিস্থিতি চরম অবনতি ঘটলে প্রশাঁসনে বান্দরবান জেলা কে রেড জোন ঘোষনা করে লকডাউন করা হয়,  লকডাউনে থাকা দুঃস্থ ও কর্মহীন পরিবারে কে ক্রান্তকালীন সহযোগীতা হিসেবে ত্রান সমগ্রী বিতরনে সিদান্ত নেন জেলা পরিষদ ও ইউএনডিপি এর যৌথ উদ্দ্যোগে,  সংশিষ্ট সূত্রের জানা যায়, ঐ সব ত্রান সামগ্রী বর্ষাকালীন নানা দুর্যোগে কারনে সময়ের মত পৌছাইতে না পারায় এরই অংশ হিসেবে আজ (১৪ আগষ্ট) শুক্র বারে ৬ হাজার ১ শত ৯৫ পরিবারের মাঝে খাদ্যশষ্যা ত্রানসামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে।
সূত্রে জানা যায়,  ত্রান বিতরনী প্রথম পর্যায়ে মোট ২৭২৮ পরিবারের মধ্যে পাইন্দু ইউনিয়নের মোট ১৫০৪ পরিবার ও গ্যালেঙ্গা ইউনিয়নের মোট ১২২৪ পরিবার, যা দুই ইউনিয়নে মিলে সর্বমোট ২৭২৮ পরিবারের মাঝে খাদ্যশষ্যা ত্রান সামগ্রী বিতরন করা হয়েছে বলে ত্রান বিতরনকারীর কর্তৃক জানিয়ছেন, বাকি দুটি ইউনিয়নের মোট ৩৪৬৭ পরিবারের যা, রুমা সদর ইউনিয়নে মোট ১৭৭৫ পরিবার ও রেমাক্রী প্রাংসা ইউনিয়নে মোট ১৬৯২ পরিবারের ত্রান সামগ্রী বিতরন কর্মসূচি আগামী শনিবারে সমপন্ন হবে বলে জানা গেছে,