নুসরাত ও শিশু মনির হত্যার প্রতিবাদে কওমি প্রজন্মের মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদক: সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদরাসার আলিম পরীক্ষার্থী নুসরাত জাহান রাফিকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা ও ডেমরায় ছোট্ট শিশু মনিরকে নৃশংসভাবে হত্যার প্রতিবাদে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সচেতন কওমি মাদরাসা ছাত্রদের আয়োজনে ‘কওমি প্রজন্ম’-এর ব্যানারে মানবন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১১ এপ্রিল) ‘অপরাধীর পরিচয় শুধুই অপরাধী’ শিরোনামে পালিত মানববন্ধন থেকে নৃশংস হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানানো হয়েছে। বিশিষ্ট ওয়ায়েজ, লেখক ও সমাজকর্মী মুফতি হাবিবুর রহমান মিছবাহর সভাপতিত্বে ও কলরবের যুগ্ম-নির্বাহী পরিচালক মুহাম্মাদ বদরুজ্জামানের পরিচালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন- কলরবের প্রধান পরিচালক রশিদ আহমাদ ফেরদাউস, মুফতি আবু ইউসুফ মাহমুদি, মুফতি ছাকিবুল ইসলাম কাসেমি, মুফতি আবদুর রহমান কোব্বাদি, মুফতি রেজাউল করীম আবরার, হাফেজ ক্বারী ইলিয়াস লাহোরি, ক্বারী আব্দুল কাইয়ুম মোল্লা, ক্বারী নুর মোহাম্মাদ, মাওলানা নজির আহমাদ শিবলী প্রমুখ। মানববন্ধনে সভাপতির বক্তব্যে মুফতি হাবিবুর রহমান মিছবাহ বলেন, ‘স্বাধীন বাংলাদেশের নাগরিক হয়েও আমরা শঙ্কায় থাকি, বিচার হবে কি না। অপরাধীদের বিচার হোক, দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হোক; এটাই দাবি আমাদের।’ মানবন্ধন থেকে বক্তারা সোনাগাজী ও ডেমরার ঘটনায় গভীর শোক প্রকাশ করে বলেন, এটা কোনোভাবেই সভ্য সমাজের পরিচয় হতে পারে না। একজন শিক্ষার্থীকে যৌন নিপীড়নের প্রতিবাদ করার কারণে পুড়িয়ে মেরে ফেলবে। মারার এ ঘটনা হতবাক করে দেয়ার মতো। মাদরাসার অধ্যক্ষের নামে যে অভিযোগ পাওয়া গেছে তা খতিয়ে দেখাসহ এ ঘটনার সাথে জড়িতদের কঠোর শাস্তির দাবি করেছেন তারা। অপরদিকে ডেমরার ঘটনায় মসজিদের ইমাম কর্তৃক শিশু মনিরকে নৃশংসভাবে হত্যার কঠোর শাস্তি দাবি করেছেন মানববন্ধনকারীরা। মানববন্ধনে নারীর প্রতি নিপীড়নরোধে ইসলামের মূল্যবোধ জাগ্রতসহ ধর্মীয় মূল্যবোধ বৃদ্ধির চেষ্টা, নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে কঠোর আইন প্রণয়ন, ধর্ষণের শাস্তির বিধান মৃত্যুদণ্ড ও ধর্ষণ মামলা পরিচালনার জন্য আলাদা আদালত গঠনসহ বেশকিছু দাবি উত্থাপন করা হয়। দাবিগুলো পেশ করেন, পাবলিক ভয়েস টোয়েন্টিফোরের নির্বাহী সম্পাদক হাছিব আর রহমান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: