নরসিংদীতে ধর্ষণ মামলায় ছাত্রলীগ সভাপতি শাকিল গ্রেফতার


» উত্তরা নিউজ I সারাবাংলা রিপোর্ট | | সর্বশেষ আপডেট: ২৭ নভেম্বর ২০২০ - ১০:৩৫:২৭ অপরাহ্ন

নরসিংদী প্রতিনিধিঃ নরসিংদীর রায়পুরায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে সরকারী অডিটরিয়ামে ডেকে নিয়ে ১০ম শ্রেনীর এক স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ মামলার আসামি উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ধর্ষক আসাদুল হক চৌধুরী শাকিলকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
শুক্রবার(২৭ নভেম্বর) দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়ীয়া শহরের একটি রেস্তোরা থেকে প্রায় ১মাস ৫দিনের মাথায় গ্রেপ্তার করে রায়পুরা থানা পুলিশ।
এদিকে ধর্ষক শাকিল গ্রেপ্তার হওয়ায় খবর রায়পুরায় ছড়িয়ে পড়লে উপজেলা জুড়ে জনমনে স্বস্তি ফিরে আসে।রায়পুরা থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ঘটনার পর থেকে শাকিল গা ঢাকা দেয়। কিন্তু পুলিশ তাকে গ্রেপ্তারে সার্বক্ষণিক তৎপর ছিলেন। অবশেষে প্রায় ১মাস ৫দিনের মাথায়  শুক্রবার তাকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয় রায়পুরা থানা পুলিশ । নরসিংদী জেলা পুলিশের মিডিয়া সমম্বয়কারী ও জেলা গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক রুপন কুমার সরকার পিপিএম জানান, গ্রেপ্তারের  পরে শাকিলকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।
উল্লেখ্য: গত ২২ অক্টোবর বৃহস্পতিবার  রাত ১১টায় উপজেলার শ্রীরামপুর রেলগেইট এলাকায় অবস্থিত রাজিউদ্দিন আহমেদ রাজু অডিটোরিয়াম হলের একটি কক্ষে উপজেলার অলিপুরা ইউনিয়নের নবিয়াবাদ এলাকার বাসিন্দা ও নরসিংদী টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজের দশম শ্রেণীর ছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ডেকে নিয় কাজী ডেকে বিয়ে করার কথা বলে রাত না হওয়া পর্যন্ত ভবনের কেয়ারটেকার সুমনের রুমে তাকে বসিয়ে রাখা হয়। এরপর রাতে স্পিড ক্যানের ভিতরে ঘুমের ট্যাবলেট ঢুকিয়ে ট্যাবলেট মিশ্রিত স্পিড খাইয়ে স্কুল ছাত্রীকে শাকিল ধর্ষণ করে। পরে  ওই তরুনী বাঁচার জন্য চিৎকার দিলে বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখিয়ে অডিটরিয়ামের একটি রুমে তাকে আটক করে রাখা হয়। এসময় স্কুল ছাত্রীর চিৎকার চেচামেচিতে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে সাথে সাথে ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন শাকিল। পরে সেখানকার লোকজন “৯৯৯” এর মাধ্যমে বিষয়টি পুলিশকে জানালে, পুলিশ এসে ওই স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন।
এ ঘটনায় ২৩ অক্টোবর শুক্রবার ভুক্তভোগী স্কুল ছাত্রী বাদী হয়ে উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি আসাদুল হক চৌধুরী শাকিল (২৭) ও তার এক সহযোগির বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে রায়পুরা থানায় মামলা দায়ের করে।
মামলা নং ৩৫, তারিখ ২৩ অক্টোবর ২০ইং। পরে ওই দিন রাতেই অডিটোরিয়ামের কেয়ারটেকার সুমনকে আটক করেন রায়পুরা থানা পুলিশ। পরদিন সকালে কেয়ারটেকার সুমনকে বরখাস্ত করে নরসিংদী জেলা পরিষদ কর্তৃপক্ষ।