ধ্যানমগ্ন উন্মাদ

আবুল বাশার শেখ

» সাহিত্যনুষ্ঠান কলমবাণী | | সর্বশেষ আপডেট: ১৭ নভেম্বর ২০২০ - ১২:২৯:৪৮ অপরাহ্ন

আদিকালের যোগ সূত্রে পাওয়া
পাশা পাশি পাপ পূণ্যের বসতি
ক্ষণকালের চিন্তিত ফসল হিসেবে
গভীর রাতের দুই ফোটা জল
মাঝে মধ্যে অজানায় উৎসর্গ করি।
শূন্য দূরত্বে বসতি গড়ে খেলছে
প্রতিপক্ষ কোথাও কখনো দেখা যায়নি,
তবে নিজের জানান দিতে
বার্তা বাহকের ঠিকই প্রয়োজন পড়েছে তাঁর।
বিনিময়ের সূত্রটাও জটিল
প্রিয়-অপ্রিয় রঙিন ধরণীর বুকে
ভাঙ্গা গড়ার মাঝেই কত্ত কিছু।
বিশালতার যেমন শেষ নেই
ঠিক তেমনি ক্ষুদ্রেরও শেষ নেই
আহারের পর্যাপ্ততায় ঘাতটি রাখেনি
সবই দিয়েছেন উজার করে।
শুধু ধ্যানমগ্ন উন্মাদগুলো শোনেনা কথা
যারা তাঁকে পাওয়ার ব্যকুলতায় ভুলে যায় সব
কি জীবন কি সংসার সবই যেন মূল্যহীন।
রাতের গভীরতায় ভারী হয়ে যায়
তাঁদের চোখ থেকে ঝরেপরা ফোটা ফোটা জল
হিসেবের খাতায় কি পাপ কি পূণ্য
শিশিরের স্বচ্ছ জলে মিশে মিশে হাওয়া হয়ে যায়।