মুহাম্মদ গাজী তারেক রহমান মুহাম্মদ গাজী তারেক রহমান
উত্তরা নিউজ


ধর্ষণ ও খুনের শাস্তি দাবি দ্রুত বিচার আইনে

রাজধানীতে সচেতন নাগরিক সমাজের মানববন্ধন




‘দেশে ধর্ষণ মহামারি আকার ধারণ করেছে। আমরা সচেতন অভিভাবক ও নাগরিক সমাজ থেকে শুরু করে সব পেশার মানুষ আজ চরম উৎকণ্ঠায় আছি। ধর্ষণ ও খুনের শাস্তি দ্রুত বিচার আইন ট্রাইব্যুনালে নিয়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হলে, অপরাধীরা পরবর্তীতে এ রকম জঘন্য  অপরাধ করার দুঃসাহস পাবে না।’

আজ শুক্রবার (১৯ জুলাই) বেলা ১১টার দিকে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধনে এসব কথা বলেন বক্তারা। ‘দ্রুত বিচার আইনে ধর্ষকদের শাস্তি’ শীর্ষক এ মানববন্ধনের আয়োজন করে সচেতন অভিভাবক ও নাগরিক সমাজ।

বক্তারা বলেন, দেশে বর্তমানে ধর্ষণ মহামারি আকার ধারণ করেছে। আমরা সচেতন অভিভাবক ও নাগরিক সমাজ থেকে শুরু করে সব পেশার মানুষরা আজ চরম উৎকণ্ঠার মধ্যে আছি। তাঁরা বলেন, আমরা লক্ষ্য করেছি, আট মাসের শিশু থেকে শুরু করে ৯০ বছরের বৃদ্ধা পর্যন্ত ধর্ষকদের হাত থেকে কেউ রেহাই পাচ্ছে না। সর্বশেষ শিকার রাজধানীর ওয়ারী এলাকার সাত বছরের নিষ্পাপ সায়মা। আমরা বিশ্বাস করি, ধর্ষক বা অপরাধীদের যথাযথ শাস্তি নিশ্চিত করা হলে, অপরাধ বা ধর্ষণ লাগামহীনভাবে ঘটবে না। আমরা এও বিশ্বাস করি, ধর্ষকদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দ্রুততম সময়ে নিশ্চিত করা হলে, ধর্ষণ অনেকাংশে কমে যাবে।

মানববন্ধনে সচেতন অভিভাবক ও নাগরিক সমাজের পক্ষে বক্তব্য দেন বসুনিয়া ফারুক, সাইফুর রহমান, ফেরদৌসী সুলতানা, মারজিয়া সাদিয়া প্রমুখ।