দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি ও ক্রমবর্ধমান ধর্ষণ সরকারের গোমর খুলে দিয়েছে – ইসলামী যুব আন্দোলন


» এইচ এম মাহমুদ হাসান | | সর্বশেষ আপডেট: ২০ অক্টোবর ২০২০ - ০১:২২:০০ অপরাহ্ন

সরকার দলীয় যৌনসন্ত্রাসীদের উপুর্যুপরি ধর্ষন ও নারী নির্যাতনের ঘটনা যখন দেশবাসীকে বিব্রত করছে তখনই তলাবিহীন সরকার নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্য বাড়িয়ে সাধারণ জনতার সাথে তামাশা শুরু করছে। এর মাধ্যমে প্রমাণিত হয়েছে এই সরকার দেশের উপরে নিয়ন্ত্রণহীন হয়ে পড়েছে। এবং এসব ঘটনা ভোটবিহীন অবৈধ সরকারের গোমর খুলে দিয়েছে বলে মন্তব্য করেন ইসলামী যুব আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সভাপতি কে এম আতিকুর রহমান।
আজ সকাল ১০ ঘটিকায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ইসলামী যুব আন্দোলন ঢাকা মহানগর কর্তৃক আয়োজিত বিক্ষোভ মিছিল পূর্ব মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আরও বলেন, সরকার দলীয় এমপি মন্ত্রীদের অশ্লীলতার ভিডিও এখন জনগণের হাতে হাতে ঘুরছে, জাতি হিসেবে আমরা লজ্জিত। এই সরকারের লজ্জা হওয়া উচিত।
নগর সভাপতি মুফতী আবু তালহার সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলামের সঞ্চালনায় প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন মুফতী মানসুর আহমদ সাকী। তিনি বলেন, দেশের চলমান অস্থিতিশীলতার দায় সরকার কোনোভাবেই এড়াতে পারে না। ধর্ষনের বিরুদ্ধে শুধু মৃত্যুদণ্ডের আইন নয় বরং বাস্তবায়ন করা সময়ের দাবি। দেশে দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি নিয়ে তিনি বলেন, যে হারে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্য হু হু করে বাড়ছে তাতে সাধারণ জনতার বাঁচা-মরার প্রশ্নের সৃষ্টি হয়েছে। অবিলম্বে সকল দ্রব্যের মূল্য জনসাধারণের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে আনতে হবে।
মানববন্ধনে আরও বক্তব্য রাখেন যুবনেতা মুফতী শেখ মুহাম্মাদ নূর-উন-নাবী, ইলিয়াস হুসাইন, মাহবুবুর রহমান, মোস্তাফিজুর রহমান, জানে আলম সোহেল, মাওলানা আল আমীন এহসান, মুফতী এইচ এম আবু বকর সিদ্দীক, আল আমীন সোহাগ, মুফতী শওকত ওসমান প্রমূখ নেতৃবৃন্দ। বক্তারা দেশের ক্রমবর্ধমান অপরাধ প্রবণতা ও দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি নিয়ে গভীর আশঙ্কা প্রকাশ করেন। মানববন্ধন শেষে মিছিল নিয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করেন।