দুপুরে কোয়ারেন্টাইন ইস্যুতে বৈঠকে বসছেন পাপন!


» এইচ এম মাহমুদ হাসান | | সর্বশেষ আপডেট: ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ - ১১:৩৮:২৫ পূর্বাহ্ন

সবার জানা, জাতীয় দল ও এইচপির শ্রীলঙ্কা সফর নিয়ে দেখা দিয়েছে অনিশ্চয়তার দোলাচাল। সেটা অন্য কোনো কারণে নয়। লঙ্কান স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কঠোর অবস্থানের কারণেই মূলত দেখা দিয়েছে শঙ্কা।

করোনাভাইরাসে দক্ষিণ এশিয়ার অন্যান্য যেকোনো দেশের তুলনায় শ্রীলঙ্কায় সংক্রমণ ও মৃত্যুর হার কম। বোঝাই যায়, এটি লঙ্কান স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কঠোর স্বাস্থ্যবিধি ও কার্যকরী দিক নির্দেশনার কারণেই সম্ভব হয়েছে।

নিজেদের এই অবস্থান ধরে রেখে বাংলাদেশ জাতীয় দল ও এইচপি ইউনিটের সফরে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনের ব্যাপারে অনড় লঙ্কান স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। এদিকে বিসিবি আবার কিছুতেই সাতদিনের বেশি কোয়ারেন্টাইনে থাকার পক্ষে নয়।

এই কোয়ারেন্টাইন ইস্যুতে সফরের ব্যাপারে বিসিবি ও লঙ্কান বোর্ডের মধ্যে রীতিমতো দূরত্ব সৃষ্টি হয়েছে। যেহেতু জাতীয় দলের সঙ্গে এইচপির বড় বহরও যাওয়ার কথা, তাই বিসিবি কিছুতেই ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকার শর্ত মানতে রাজি নয়।

কারণ জাতীয় দল ও এইচপি মিলে প্রায় ৪৫ ক্রিকেটার ও সাপোর্টিং স্টাফ মিলে ৬০ জনের বহর হবে। শ্রীলঙ্কায় এই ৬০ জনের অনুশীলন কিংবা খেলার কোনো কার্যক্রম ছাড়া হোটেল আবাসন ও খাওয়া বাবদ বিসিবিকে গুনতে হবে অন্তত ৭৫-৮০ লাখ টাকা।

খুব স্বাভাবিকভাবেই নিজ খরচে শ্রীলঙ্কা গিয়ে হাত-পা গুটিয়ে ক্রিকেটারদের বসে থাকার জন্য এত বিপুল অঙ্কের অর্থ খরচ করতে রাজি নয় বিসিবি। আর তাই ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন মানতে একদমই রাজি নয় দেশের ক্রিকেটের অভিভাবক সংস্থাটি। সেটা গত কয়েকদিন বিসিবি পরিচালকদের কণ্ঠেই প্রতিধ্বনিত হয়েছে।

রোববারও সঙ্গে আলাপে বোর্ড পরিচালক ও এইচপি প্রধান নাইমুর রহমান দুর্জয় জানিয়েছেন, আমরা ৭ দিনের বেশি কোয়ারেন্টাইনে থাকার পক্ষে নই। লঙ্কান বোর্ডকে এটি জানিয়ে দেয়া হয়েছে এবং আমরা তাদের মতামতের অপেক্ষায় আছি। তাদের অবস্থান না জানা পর্যন্ত সফরের জন্য স্কোয়াডও ঘোষণা করা হবে না।

উল্লেখ্য, বোর্ড পরিচালনা পর্ষদে থাকা জাতীয় দলের তিন সাবেক অধিনায়ক আকরাম খান, নাইমুর রহমান দুর্জয় ও খালেদ মাহমুদ সুজন রোববার দুপুরে এই ইস্যুতে বৈঠক করেছেন। তাদের সঙ্গে জাতীয় দলের আরেক সাবেক অধিনায়ক ও প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নুও ছিলেন।

কিন্তু সেখানে ক্রিকেট বোর্ডের সর্বশেষ অবস্থান ও সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়নি। আর তাই আজ (সোমবার) দুপুরের পর বোর্ডে এক গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকের সম্ভাবনা রয়েছে। বিসিবির এক দায়িত্বশীল উচ্চ পর্যায়ের সূত্র জানিয়েছে, এই অনানুষ্ঠানিক বৈঠকে বোর্ড প্রধান নাজমুল হাসান পাপনের শারীরিকভাবে উপস্থিত থাকার সম্ভাবনা রয়েছে। পাপন নিজে বোর্ডের অন্যান্য কর্তাদের সঙ্গে বসে জাতীয় দল ও এইচপির শ্রীলঙ্কা সফর নিয়ে বিসিবির অবস্থান ঠিক করবেন।