দল থেকে বাদ পড়ে ক্ষোভ উগড়ে দিলেন ব্রড


» Masud Rana | | সর্বশেষ আপডেট: ১১ জুলাই ২০২০ - ০২:৩৯:৫৩ অপরাহ্ন

ইংল্যান্ডের পেস আক্রমণের অন্যতম সেরা সদস্য ছিলেন স্টুয়ার্ট ব্রড। প্রতিপক্ষের উইকেট পড়ছে না, ইংলিশ অধিনায়ক আস্থা রাখলেন ব্রডের ওপর, এরপরই চলে আসে কাঙ্খিত ব্রেক থ্রু। ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলে এটা যেন নিয়মিত ঘটনা। টেস্টে অ্যান্ডারসন-ব্রড জুটি সত্যিই ভয়ঙ্কর ছিল অন্য যে কোনো দলের জন্য।

কিন্তু সেই স্টুয়ার্ট ব্রডকেই কি না দল থেকে বাদ দিয়ে দিলো এবার ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে। তাকে বাদ দিয়েই সাজানো হয়েছে একাদশ। যা প্রচণ্ড হতাশা তৈরি করেছে ব্রডের মধ্যে। তিনি নিজেই এ নিয়ে সরাসরি মন্তব্য করেছেন। স্টুয়ার্ট ব্রড বলেন, আমি প্রচণ্ড হতাশ এবং ক্ষুব্ধ।

ইংল্যান্ডের টেস্ট ক্রিকেট ইতিহাসে অ্যান্ডারসনের পর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী স্টুয়ার্ট ব্রড। এখনও পর্যন্ত ১৩৮ টেস্টে তার ঝুলিতে জমা পড়েছে ৪৮৫ উইকেট। ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে একাদশে নিজেকে না দেখে তিনি বলেন, ‘আমি কোনোভাবেই বুঝতে পারছি না, কিসের ভিত্তিতে নেয়া হলো এই সিদ্ধান্ত।’

একই সঙ্গে ব্রড জানিয়ে দিলেন, নিকট ভবিষ্যতে তিনি নিজেকে নির্বাচকদের সামনে প্রমাণ করে ছাড়বেন। স্কাই স্পোর্টসকে ব্রড বলেন, ‘আমি সাধারণ খুব একটা আবেগপ্রবণ ব্যক্তি নই। কিন্তু আমি গত কয়েকটা দিনকে আমার ক্যারিয়ারে সবচেয়ে কঠিন হিসেবে পাচ্ছি। আমি কতটা হতাশ হয়েছিলাম যে, হাত থেকে যদি হঠাৎ করে আপনার প্রিয় মোবাইলটা পড়ে গিয়ে স্ক্রিণ ভেঙে গেলো, অথচ মোবাইলটা তখন আপনার খুবই প্রয়োজন, তখন কেমন মনে হবে? তেমনটাই মনে হয়েছে আমার দল থেকে বাদ পড়ার পর।’

এর আগে সর্বশেষ যে সিরিজ হয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে, সেই সিরিজে ব্রড ছিলেন সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী। ১৯.৪২ গড়ে তিনি ওই সিরিজে নিয়েছিলেন ১৪ উইকেট। আর অ্যাশেজে নিয়েছেন ২৬.৬৫ গড়ে নিয়েছেন ২৬ উইকেট।