দক্ষিণখানের গোয়ালটেকে কেমিক্যাল গোডাউন! ঝুঁকিতে জনজীবন


» মুহাম্মদ গাজী তারেক রহমান | উত্তরা নিউজ, স্টাফ রিপোর্টার | সর্বশেষ আপডেট: ২৮ মে ২০১৯ - ০৯:৫০:৩০ অপরাহ্ন

স্টাফ রিপোর্টার: দক্ষিণখান এলাকার গোয়ালটেক ২ নং লেনের ২৩২ নম্বর বাড়ির নীচতলায় গড়ে তোলা হয়েছে কেমিক্যালের গোডাউন। তিন তলা ভবনটির ২য় তলায় বাস করেন অত্র বাড়ির মালিক ও কেমিক্যাল গোডাউনটির স্বত্ত্বাধিকারী বদরুল ওরফে বাবুল। ২৭ মে, ২০১৯ গণমাধ্যমকর্মীরা অনুসন্ধানমূলক প্রতিবেদনের তথ্য সংগ্রহ করতে গেলে, সাংবাদিকদের অবস্থান টের পেয়ে গোডাউনে তালা ঝুলিয়ে চলে যায় শ্রমিকরা। পরে জানালা দিয়ে ক্যামেরার লাইট পড়তেই স্পষ্ট হয় বাড়ীটিতে কেমিক্যাল গোডাউন থাকার প্রমাণ। বিষয়টি নিয়ে বাড়ির মালিক ও কেমিক্যাল গোডাউনটির স্বত্ত্বাধিকারী বদরুল ওরফে বাবুলের সাথে কথা বলতে গেলে তাকে বাসায় পাওয়া যায়নি। তবে, তার সাথে ফোনে কথা বলে বোঝা যায়, ‘আবাসিক ভবনে কেমিক্যাল গোডাউন রাখায়, দুশ্চিন্তা তো দূরের কথা, কোনরূপ দূর্ঘটনার শঙ্কাই নেই তার।’

অথচ, সরকারিভাবে সম্পূর্ণ নিষেধাজ্ঞার পরেও আবাসিক এই ভবনটির নীচ তলায় কেমিক্যাল মজুদ ও বাজারজাতকরণের মতো নিষিদ্ধ কার্যক্রম চালানো হচ্ছে। এতে করে মারাত্মক ঝুঁকির মুখে রয়েছে আশপাশের বাসাগুলোতে বসবাসরত বাসিন্দারা। যেকোন সময় দাহ্য পদার্থের আগুনে মহানগরী এলাকায় পুনরাবৃত্তি ঘটতে পারে ‘চকবাজার ট্র্যাজেটি’র মত ভয়াবহ অগ্নিদূর্ঘটনা। বিষয়টি জানতে পেরে, শঙ্কার কথা জানিয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

তাৎক্ষণিকভাবে বিষয়টি দক্ষিণখান থানা কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হলে, ঘটনাস্থল পরিদর্শনে আসে পুলিশ। পরে, এ ব্যাপারে ডিএনসিসি আওতাভূক্ত উক্ত এলাকার কাউন্সিলর আব্দুল মোতালেবের সাথে কথা বলতে চাইলে, ব্যস্ততা দেখিয়ে বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে রাজী হননি তিনি।

অন্যদিকে, আবাসিক ভবনে ক্যামিকেলের গোডাউন গড়ে তোলায় মারাত্মক স্বাস্থ্যঝুঁকিসহ যেকোন মুহুর্তে অগ্নিদূর্ঘটনার চরম ঝুঁকিতে রয়েছে অত্র ভবনটির আশপাশের বাড়িগুলোতে বসবাসরত সকল বাড়ীওয়ালা ও ভাড়াটিয়াগণ। ‘আবাসিক ভবনে ক্যামিকেল গোডাউন পরিচালনা বন্ধে’ যথাযথ কর্তৃপক্ষের কঠোর আইনানুগ পদক্ষেপই ঝুঁকিমুক্ত করতে পারে অত্র ভবনটির পাশে বসবাসরত অন্যান্য সাধারণ মানুষের জীবন।