তুরাগে ধর্ষকের বাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

অনতিবিলম্বে ধর্ষককে গ্রেপ্তারের দাবী

» মুহাম্মদ গাজী তারেক রহমান | উত্তরা নিউজ, স্টাফ রিপোর্টার | সর্বশেষ আপডেট: ২০ মে ২০২০ - ০৩:১৩:৩৯ অপরাহ্ন

তুরাগে ১২ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের প্রতিবাদে অভিযুক্তের বাড়ির সামনে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। অভিযুক্ত ওই ব্যক্তির নাম তৌহিদ (২৭)। আজ সকাল সাড়ে এগারটায় (২০ মে, বুধবার) তুরাগের নয়ানীচালা এলাকার ৪ নম্বর রোডের ডি ব্লকে অবস্থিত ৫০নং বাড়ির সামনে প্রায় শতাধিক এলাকাবাসী ধর্ষণকারীর বিরুদ্ধে প্ল্যাকার্ড হাতে মানবন্ধন করেছে।

এসব প্ল্যাকার্ডে লেখা ছিল ‘ধর্ষণকারী নিধন করি সমাজকে রক্ষা করি, অবিলম্বে ধর্ষকের কঠোর শাস্তি চাই, ধর্ষকের উল্লাস ধর্ষিতার কান্না মেনে নিব আর না, ধর্ষকের শাস্তির ব্যাপারে প্রশাসনের সু-সহযোগিতা চাই, তনু ও নুসরাতের মতো বোনদের আমরা আর হারাতে চাই না’ ইত্যাদি। এ সময় ধর্ষক তৌহিদকে গ্রেপ্তারের আওতায় আনার দাবী জানায় মানববন্ধনকারীরা।

নয়ানীচালা একতা যুব সংঘের উদ্যোগে আয়োজিত উক্ত মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ‘তৌহিদ এর আগেও এলাকায় ধর্ষণের মতো জঘন্যকান্ড ঘটিয়েছে। এলাকায় বিচার-শালিসের নামে একাধিকবার তাকে ছাড় দেয়া হয়েছে। সে শুধু নারীলোলুপই নয় বলাৎকারের মতো কু-রুচির পরিচয়ও তার রয়েছে। সর্বশেষ, করোনার এই দুর্যোগে নিরীহ একটি মেয়েকে ত্রান দেবার কথা বলে রাস্তা থেকে ডেকে আনার পর মেয়েটিকে মুখ বেঁধে ধর্ষণ করে তৌহিদ।’

বক্তারা আরও বলেন, ‘বর্তমানে তৌহিদকে রক্ষা করার জন্য কিছু লোক নানাভাবে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। তাদেরকে আমরা স্পষ্ট করে বলতে চাই, কোন ধর্ষককে রক্ষার করার মধ্য দিয়ে একটি সুন্দর সমাজ প্রত্যাশা করা যায়না। তাই তৌহিদের মতো ধর্ষককে রক্ষা করার অপচেষ্টা যারা করছেন তারা কখনোই সফল হবেন না।’

উল্লেখ্য যে, গত ১৬ই মে নয়ানীচালার নিজ বাসার ৪র্থ তলায় পিতৃহীন মীম আক্তার (১২)কে ঈদের জামা-কাপড় ও খাদ্যসামগ্রী দেওয়ার নাম করে ডেকে নিয়ে যায় তৌহিদ। পরে মুখ বেঁধে মীমকে ধর্ষণ করে সে। একপর্যায়ে মীম বিবস্ত্র অবস্থায় হাসান মঞ্জিল নামের ওই বাড়ী থেকে চিৎকার দিয়ে নিচে নেমে আসলে এলাকাবাসী তাকে উদ্ধার করে এবং স্থানীয়দের নিকট ঘটনাটি খুলে বলে মীম।