তিস্তা নদী ভাঙ্গনে হুমকির মুখে ডিমলা উপজেলার হাজারো পরিবার


» কামরুল হাসান রনি | ডেস্ক ইনচার্জ | | সর্বশেষ আপডেট: ১৮ জানুয়ারি ২০২০ - ০৫:৩৫:০৪ অপরাহ্ন

মোঃ মোশফিকুর (চিলাহাটি-নীলফামারী) প্রতিনিধি : বাংলাদেশের উত্তর জনপদের সীমান্তবর্তী নীলফামারী জেলার জনবহুল তিস্তা নদী যার স্রোতের ভাঙ্গনে ফসলী জমি, ঘর-বাড়ি, গবাদি পশু, বসত ভিটা, নদী গর্ভে বিলিন হয়ে যাচ্ছে। এরই মধ্যে অনেকে গৃহ হাড়া হয়েছে। এমন পরিস্থিতির স্বীকার হয়েছে নীলফামারী ডিমলা উপজেলা ৭নং খালিশা চাপানী ইউনিয়ন বাইশপুকুর সতিঘাট ও পার্শবর্তী ৮নং ঝুনাগাছ চাপানী ছাতুনামা এলাকায়।

গত বুধবার সকালে ৮নং ঝুনাগাছ চাপানী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক ৭নং খালিশা চাপানী ইউপি চেয়ারম্যান আতাউর রহমান সরকার, আওয়ামীলীগ সভাপতি সোহরাব হোসেন, ইউপি সদস্য রম্জান আলী। সহ দলীয় লোকজন এলাকা পরিদর্শন করেন।

এ সময় শত শত উপস্থিত লোকজন বলেন, তিস্তা নদীর ভাঙ্গন থেকে হামাক বাঁচান বাহে। পরিদর্শন শেষে বাইসপুকুর চরে ৪নং ওয়ার্ড সভাপতি আব্দুল কাদেরের সভাপতিত্বে নদী ভাঙ্গন রোধে করনীয় শীর্ষক এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় বক্তাগণ দুই ইউনিয়নে ২ হাজার হেক্টর ফসলি জমি এবং ২ হাজার ৫শত পরিবারকে নদীভাঙ্গন রোধে প্রায় ১ কি.মি. বাঁধ/গ্রোয়েন/ পাইলিং নির্মানে প্রয়োজনীয় ব্যবস্তা গ্রহনের জন্য বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ও স্থানীয় সাংসদ এবং জেলা প্রশাসক, উপজেলা র্নিবাহী অফিসার, ডালিয়া নির্বাহী প্রকৌশলী সহ সংশ্লিষ্ঠ উর্ধতন কতৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেন।