তিন সন্তানের জননীকে নৃশংসভাবে হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ

কালীগঞ্জে ভেরোনিকা রোজারিও নির্মম হত্যাকন্ডের

» মোহাম্মদ আব্দুর রহমান | কালীগঞ্জ (গাজীপুর) প্রতিনিধি | | সর্বশেষ আপডেট: ০৬ অক্টোবর ২০১৯ - ০৯:০৬:০১ অপরাহ্ন

গাজীপুরের কালীগঞ্জে ঘরে ঢুকে তিন সন্তানের জননী ভেরোনিকা রোজারিও নির্মম হত্যাকান্ডে জড়িতদের অবিলম্বে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন শেষে প্রতিবাদ সভা করেছেন খ্রিষ্টান এসোসিয়েশসহ বিভিন্ন সংস্থার লোকজন।

রোববার সকালে উপজেলার নাগরী ইউনিয়নের মঠবাড়ি মিশন চৌরাস্তা এলাকা থেকে ভিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে নাগরীর প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে পুনরায় মঠবাড়ি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন চৌরাস্তা মোড়ে এসে মানববন্ধন করেন মঠবাড়ি খ্রিষ্টান কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন, মঠবাড়ি ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী সমবায় সমিতি, মঠবাড়ি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, মঠবাড়ি খ্রিষ্টান এসোসিয়েশন, ব্যবসায়ী সমিতি, মঠবাড়ি মিশন ক্ষমা ও ভালবাসা সংঘসহ গ্রামবাসি। পরে ঢাকা- বাইপাস সড়কের উলুখোলা নামক স্থানের কুচিলা বাড়ি তিন রাস্তার মোড়ে টানা দু’ঘন্টা যবত মানববন্ধন শেষে এক প্রতিবাদ সভা অনুষ্টিত হয়।
এ সময় বক্তব্য রাখেন- বাংলদেশ খ্রিষ্টান এসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট নির্মল রোজারিও, মহাসচিব হেমন্ত কোড়াইয়া, নাগরী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান এড. সিরাজ মোড়ল, বাংলাদেশ টিভি ও বেতারের নাট্যকার ও অভিনেতা বিন্দু সুমন রোজারিও, মঠবাড়ি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা সিষ্টার অনু এসএম আার এ, নিকোলাস রোজারিও, আরিফ মিয়া, বিপ্লব পিউরিফিকেশন, থিওফিল রোজারিও, লিংকন রোজারিও, প্রভাত ডি রোজারিও, পল্লব ডি রোজারিও, সুশীল রোজারিও, তুলসি রেজারিও প্রমূখ।

এ ব্যাপারে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ওসি অপারেশন মো. মুজাহিদুল ইসলাম জানান- হত্যা মামলার মূল আসামী রতন কুরাইয়াসহ দুইজনকে নিহতের ব্যবহৃত মোবাইল ফোনসহ শুক্রবার রাতে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।
পরে রোববার সকালে আটককৃত ওই আসামীদের গাজীপুর আদালতে প্রেরণ করে হত্যার রহস্য উদঘাটনের জন্য ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে।

উল্লেখ্য যে, ঘরে ঢুকে তিন সন্তানের জননী ভেরোনিকা রোজারিওকে নির্মম ভাবে খুন করে তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন নিয়ে যায় হত্যাকারীরা বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে ৩০ সেপ্টেম্বর সোমবার সকালে কালিগঞ্জ উপজেলার নাগরী ইউনিয়নে উলুখোলা গ্রামে।