ঢাকা থেকে গ্রামে ছুটছে মানুষ; ধরা পড়লেই কোয়ারেন্টাইন


» কামরুল হাসান রনি | ডেস্ক ইনচার্জ | | সর্বশেষ আপডেট: ১৯ মে ২০২০ - ১১:১৫:০৫ পূর্বাহ্ন

ঢাকা থেকে দলবেঁধে উপকূলীয় জেলা পটুয়াখালীর অভিমুখে বিভিন্ন বাহনে ছুটে আসছে ঘরমুখো মানুষ। তবে জেলার সীমান্তে লেবুখালী ফেরিঘাটে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এছাড়া আন্তঃজেলা চলাচল বন্ধে বিশেষ চেকপোস্ট বসানো হয়েছে। এখানে আটককৃতদের সরাসরি ১৪ দিনের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হচ্ছে। ইতোমধ্যে ঢাকা থেকে আগত বেশ কয়েকজনকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে।

জেলা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মইনুল হাসানের দিকনির্দেশনায় সোমবার (১৮ মে) রাতে ঢাকাসহ অন্যান্য জেলা থেকে আগত নারী ও শিশুসহ ২৬ জনকে আটক করেছে পুলিশ। পরে তাদের লতিফ মিউনিসিপ্যাল সেমিনারি বিদ্যালয়ে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়।

quartine

পটুয়াখালী জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (হেডকোয়ার্টার) শেখ বিল্লাল হোসেন বলেন, জরুরি প্রয়োজন ছাড়া আন্তঃজেলা চলাচল বন্ধে পটুয়াখালী জেলার সীমান্তে লেবুখালী ফেরিঘাটে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। জরুরি সেবা ব্যতীত চলাচলকারী সকল যানবাহন ফিরিয়ে দেয়া হচ্ছে। এছাড়া আন্তঃউপজেলা চলাচল উপজেলা সীমান্তে বিশেষ চেকপোস্ট বসানো হয়েছে।

quartine

স্থানীয় সাংবাদিক নেতা এমরান হাসান সোহেল বলেন, বিভিন্ন সোর্সের খবর আসছে। প্রাইভেটকার, মাইক্রোবাস এবং অ্যাম্বুলেন্সযোগে লোকজন পটুয়াখালীর বিভিন্ন উপজেলায় প্রবেশ করছে। লেবুখালী ফেরিঘাটে একটা চেকপোস্ট বসালে পটুয়াখালী জেলাটা সুরক্ষিত রাখা সম্ভব হবে।

quartine

এদিকে ঢাকা থেকে আগত পোশাককর্মীরা জানান, পটুয়াখালী পর্যন্ত পৌঁছাতে তাদের অনেক কষ্ট করতে হয়েছে। কষ্টের সাথে আছে জীবনের ঝুঁকি ও তার সাথে অতিরিক্ত ভাড়া দিতে হচ্ছে। আবার এসেই কোয়ারান্টাইনে পড়তে হচ্ছে।

ঢাকা থেকে আগত আবদুর রশিদ বলেন, আমরা ঢাকা থেকে ভেঙে ভেঙে পটুয়াখালীর লেবুখালী ফেরিঘাট এলাকায় পৌঁছালে পুলিশ আটক করে।

quartine

পটুয়াখালী শহরের বাঁধঘাট এলাকার বাসিন্দা নয়ন মৃধা বলেন, দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে মাইক্রোযোগে দুই হাজার টাকায় জেলার প্রবেশপথে দিয়ে যাচ্ছে কিছু অসাধুচালক। অ্যাম্বুলেন্স রোগী বহন করার স্থলে সুস্থ মানুষ বহন করছে শুধু বেশি অর্থের আশায়।

তিনি বলেন, চেকপোস্টের কাজটি বাস্তবায়ন করতে প্রশাসনের সকল মহলের আন্তরিক কর্মযজ্ঞ দাবি করছি। অধিকাংশ বাহন আসে গভীর রাতে।

 

সূত্র: জাগো নিউজ