ঢাকা উত্তরের ৩নং ওয়ার্ডে জিন্নাত আলীকে ঘিরে চলছে বিতর্ক


» কামরুল হাসান রনি | ডেস্ক ইনচার্জ | | সর্বশেষ আপডেট: ০২ জানুয়ারি ২০২০ - ০৫:০৪:৩৫ অপরাহ্ন

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ আসন্ন ঢাকা উত্তর সিটি করর্পোরেশনের নির্বাচনে উত্তাল হয়ে উঠছে ৩নং ওয়ার্ড। দলীয়ভাবে জিন্নাত আলীকে কাউন্সিলর প্রার্থী হিসেবে মনোনীত করায় ৩নং ওয়ার্ডে বাজারের চায়ের দোকান থেকে শুরু করে বাসা বাড়িসহ সবখানেই জিন্নাত আলীকে নিয়ে চলছে আলোচনা সমালোনা।

ইতিমধ্যে আতংঙ্কগ্রস্থ হয়ে পড়েছে অনেকেই। কথায় কথায় কোমর থেকে পিস্তল বের করে হুমকি দেওয়া জিন্নাত আলী মাতবর সরকার দলীয় মনোনয়ন পাওয়ায় হতাশ এলাকাবাসীসহ দলীয় নেতা কর্মীরা। রাস্তার হকার থেকে শুরু করে বড় ব্যবসায়ীসহ সব শ্রেনী পেশার মানুষকে পিস্তল ঠেকিয়ে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। শুধু হুমকিই নয় বিভিন্ন দোকান থেকে দামী দামী জিনিসপত্র জোর করে নেওয়ার অভিযোগ ও পাওয়া গেছে তার বিরুদ্ধে।

জানা যায়, জিন্নাত আলী মাতবর আগে জাতীয় পার্টি করতো, পরবর্তীতে আওয়ামীলীগে যোগদান করেছে। নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক একজন আওয়ামীলীগ নেতা বলেন “জিন্নাত আলী সব সময়ই আওয়ামী বিরোধী অবস্থানে থাকতো। ভিসিআর চালিয়ে যখন আমরা ১৫ই আগস্টে বঙ্গবন্ধুর বিভিন্ন অনুষ্ঠান এলাকায় দেখাতাম তখন তার দোকানে ভিসিআর ভাড়া আনতে গেলে বঙ্গবন্ধুর প্রোগাম দেখানো হবে বলে সে দিতে অস্বীকৃতি জানাতো, ভাড়া দশ/বারো গুন বেশি নিতো।” অন্য আরেকজন আওয়ামীলীগ নেতা বলেন “সে যদি আওয়ামীলীগ করেই থাকে তাহলে সে বলুক রাজনীতি করার কারণে আমাদের মতো দু একশো মামলা খেয়েছে কিনা?” নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক এলাকার একজন ছাত্রলীগ নেতা বলেন “জিন্নাত আলী মাতবর দলে অনুপ্রবেশকারী, পিস্তল ঠেকিয়ে চাঁদাবজি করে, তাকে মনোনয়ন দেওয়ায় দলের ভাবমূর্তি নষ্ট হয়েছে। সে প্রকাশ্যেই বলে বেড়াচ্ছে সে তিন কোটি টাকা দিয়ে মনোনয়ন কিনে নিয়েছে। এতে করে এলাকায় ব্যপক আলোচনা সমালোচনা হচ্ছে।”

জিন্নাত আলীর আরো চাঞ্চল্যকর সব তথ্য জানতে আমাদের সাথে থাকুন। চলবে…