উত্তরা নিউজ উত্তরা নিউজ
অনলাইন রিপোর্ট


ডেঙ্গু প্রতিরোধে ডিএনসিসি মেয়রের জনসচেতনতামূলক প্রচারণা






ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মোঃ আতিকুল ইসলাম আজ উত্তরা, নর্থ-সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় এবং গুলশানে ডেঙ্গু প্রতিরোধে জনসচেতনতামূলক প্রচারণায় অংশগ্রহণ করেন।

তিনি ৩১ জুলাই সকাল ১০টায় উত্তরা রাজলক্ষী কমপ্লেক্স ব্যবসায়ী সমিতির আয়োজনে এডিস মশার প্রজননস্থল ধ্বংস ও ডেঙ্গু রোগ প্রতিরোধ বিষয়ক সচেতনতা কর্যক্রম পরিচালনা করেন। তিনি বলেন, নগরবাসীকে এডিস মশা নিধন ও পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রমে স্বতঃস্ফুর্তভাবে এগিয়ে আসতে হবে। তিনি সবাইকে নিজ নিজ বাসাবাড়ি, অফিস ও এলাকা নিজ দায়িত্বে পরিষ্কার করতে আহ্বান জানান। তিনি সেখানে জনসচেতনামূলক প্রচারপত্র বিতরণ করেন।

বেলা ১১টায় ডিএনসিসি মেয়র নর্থ-সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজিত এডিস মশানিধন ও ডেঙ্গু প্রতিরোধ বিষয়ক সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসাবে যোগ দেন। প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র বলেন, “আমরা সকলেই নাগরিক কিন্তু কখনো প্রশ্ন করেছি যে আমরা কতজন সুনাগরিক?” তিনি বলেন আমাদের সুনাগরিক হতে হবে। এ দেশ আমাদের সকলের, ঢাকা আমাদের সকলের, ঢাকাকে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখার দায়িত্বও আমাদের। তিনি নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে বিভিন্ন নাগরিক সেবা ও বর্জ্য ব্যবস্থাপনা নিয়ে আধুনিক ও স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতি আবিষ্কার, গবেষণা ও ইনোভেটিভ আইডিয়া তৈরী করতে বলেন। তিনি উদাহরণস্বরূপ বলেন, নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৫ হাজার শিক্ষার্থী যদি প্রত্যেকে ১০ জনকে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতায় উদ্বুদ্ধ করতে পারে এবং এটি একটি চেইনে চলতে থাকে তবে সেটি অবশ্যই একটি বড় ধরনের ইতিবাচক পরিবর্তন আনতে পারে। তিনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক প্রচারণার মাধ্যমে জনগণকে সচেতন করতে তরুন সমাজকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান। তিনি সবাইকে ঘুমানোর সময়ে মশারি ব্যবহার করতে পরামর্শ দেন এবং সকল হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত রোগীদের আবশ্যিকভাবে মশারির ভেতর রাখতে নির্দেশ প্রদান করেন, যাতে এডিস মশা তাদের মাধ্যমে রোগ ছড়াতে না পারে। তিনি আরো বলেন, আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি, শুধু বর্ষাকাল নয় বরং বছরে ৩৬৫ দিন মশা নিয়ে কাজ করতে হবে আমাদের। তিনি ডেঙ্গু জ্বর থেকে মুক্তি ও এডিস মশার বিবর্তন নিয়ে গবেষণার উপর জোর দিয়ে বলেন, একটি অত্যাধুনিক গবেষণাগার ও দক্ষ গবেষক তৈরী করা এখন সময়ের দাবী।

নর্থ-সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আতিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সেমিনারে অন্যান্যের মধ্যে ডিএনসিসির প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোমিনুর রহমান মামুন, নর্থ-সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান বেনজির আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।

বেলা সাড়ে ১২টায় গুলশান-২ নং চত্বরে স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রীর মোঃ তাজুল ইসলামের সাথে ডেঙ্গু প্রতিরোধ ও পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা উদ্বুদ্ধকরণ অভিযানে অংশ নেন। এ সময় মেয়র বলেন, মশক নিধনে ডিএনসিসি গতানুগতিক পদ্ধতি থেকে বের হয়ে আধুনিক ও স্বয়ংক্রিয় যন্ত্রপাতি প্রচলন করতে যাচ্ছে। অল্প সময়ে অধিক এলাকায় মশক নিধন কার্যক্রম পরিচালনার লক্ষ্যে ডিএনসিসি মোটরসাইকেলে মশক নিধন যন্ত্র স্থাপন করে। মোঃ তাজুল ইসলাম মশক নিধনযন্ত্রযুক্ত মোটরসাইকেল এবং এর পরিচালনা দেখেন।

উত্তরা নিউজ/এস,এম,জেড