ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে ডিএনসিসির ২ বিভাগের ছুটি বাতিল


» মুহাম্মদ গাজী তারেক রহমান | উত্তরা নিউজ, স্টাফ রিপোর্টার | সর্বশেষ আপডেট: ১৯ জুলাই ২০১৯ - ০২:৫৪:৩৬ অপরাহ্ন

ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া নিয়ন্ত্রণে এডিস মশা নিধনের জন্য ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগ ও মশক নিধন বিভাগের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে।

আজ শুক্রবার রাজধানীর মানিক মিয়া এভিনিউয়ে ডিএনসিসির উদ্যোগে ডেঙ্গু-চিকুনগুনিয়া বিষয়ক জনসচেতনতামূলক র্যালীতে ডিএনসিসি মেয়র আতিকুল ইসলাম এ কথা জানান।

ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া রোগের বাহক এডিস মশা নিধন না হওয়া পর্যন্ত ডিএনসিসির ওই দুই বিভাগের কর্মীদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

এডিস মশা নিধন না হওয়া পর্যন্ত কাজ করে যাওয়ার ঘোষণা দিয়ে মেয়র বলেন, এই কাজকে আরও গতিশীল করতে ডিএনসিসির বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগ ও মশক নিধন বিভাগের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ছুটিল বাতিল করা হয়েছে। মশক নিয়ন্ত্রণে ডিএনসিসির মশক নিধন কর্মী ও সুপারভাইজাররা নিয়মিত কাজ করছে। প্রতিটি এলাকার মশক নিধন কর্মী, সুপারভাইজার ও মনিটরিং কর্মকর্তার নাম ও মোবাইল নম্বর ডিএনসিসির ওয়েবসাইটে দেয়া আছে। যে কেউ তাদের ফোন করে এ বিষয়ে জানাতে পারবেন। সেই সঙ্গে জবাবদিহিতার আওতায় আনা যাবে।

ডেঙ্গু নিধনে জনসচেতনতা জরুরি উল্লেখ করে মেয়র বলেন, বাসায় কোনোভাবেই পানি জমিয়ে রাখা যাবে না। পরিষ্কার পানিও তিন দিন জমিয়ে রাখলে এডিস মশার জন্ম হয়। জমে থাকা স্বচ্ছ পানি নিজ দায়িত্বে পরিষ্কার করতে হবে।

মেয়র আরও বলেন, বেইজমেন্টের পানির ট্যাংক, নির্মাণ কাজে ব্যবহৃত চৌবাচ্চা, ওয়াসার পানির মিটার, অব্যবহৃত বালতি, ড্রাম, পানি রাখার মটজা, ফুলের টব ইত্যাদি স্থানে একনাগাড়ে ৩ দিনের বেশি পানি জমতে দিবেন না। বাড়ির ছাদ, দুই দালানের মাঝে স্যাঁতস্যাঁতে করে রাখবেন না। বাড়ির আশে পাশে ঝোপঝাড় এবং আঙিনা পরিষ্কার রাখুন।